আড্ডা জমে না আর কুবির চায়ের দোকানগুলোতে

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ১১:৩৮ এএম, ০২ মার্চ ২০২১

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) আশেপাশের চায়ের দোকানগুলো করোনার বন্ধে ঝিমিয়ে পড়েছিল। দীর্ঘ বিরতির পর বিশ্ববিদ্যালয়ে পরীক্ষা শুরু হলে একটু আশার আলো দেখছিলেন এই দোকানিরা। কিন্তু আবার বন্ধে সেই আশাও নিভে গেছে তাদের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, যেসব দোকান আগে সকাল-বিকাল আড্ডায় মুখরিত থাকতো সেসব দোকান হয় বন্ধ আছে কিংবা গুটিকয়েক ক্রেতা বসে খোশগল্প করছে দোকানগুলোতে।

jagonews24

কুবি ক্যাম্পাসের পরিচিত এক চায়ের দোকান ‘ভিসির টঙ’। এ দোকানের চা বিক্রেতা কবির হোসেন, যিনি শিক্ষার্থীদের আছে ‘কবির মামা’ নামে অধিক পরিচিত। তিনি আক্ষেপের সুরে বলেন, ‘করোনার পর ভার্সিটি খুইলা দিছিলো, সবাই আইতো। আবার বন্ধে সব খালি হইয়া গেছে। এই যে গ্যাসের খরচ, বিদ্যুৎ খরচ সেগুলোই তো এখন উঠে না’।

এছাড়া শিক্ষার্থীদের কাছে পরিচিত আড্ডার জায়গা নুরু মামা, খালেক মামা, নবী মামা, ওলি ভাইয়ের দোকান।

jagonews24

দোকানদার নুরু মিয়া এ বিষয়ে বলেন, ‘ভার্সিটির মামারা (শিক্ষার্থীরা) নাই। ব্যবসাও চলে না’।

হল বন্ধ থাকলেও অনেক শিক্ষার্থী রয়ে গেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আশেপাশের মেসে। তেমনি একজন বাংলা বিভাগের তাওহীদ সানি। তিনি বলেন, ‘সবাই চলে গেলেও আমার যেতে মন চাচ্ছে না। অনেকদিন তো বন্ধ ছিল, আর কত! ক্যাম্পাসের নুরু মামা, রাব্বির দোকানের চা যতদিন আছে, আমিও ততদিন আছি’।

এসএমএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]