‘নুন’ খেয়ে ‘গুন’ গাইতে ভোলেননি অধ্যাপক সোবহান

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাবি
প্রকাশিত: ০২:৫০ পিএম, ১২ মে ২০২১ | আপডেট: ০৩:১৫ পিএম, ১২ মে ২০২১

নিজ দলের অর্ধশতাধিক বিরোধী শিক্ষক, ইউজিসির তদন্ত কমিটি, শিক্ষামন্ত্রণালয়ের চাপ-দ্বিতীয় মেয়াদকালের শেষ সময়ে এসবের মুখোমুখি হয়ে নাজেহাল অবস্থায় ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান। এসময় যারা পাশে ছিলেন তাদের সবারই স্বজনের চাকরি দিয়েছেন তিনি। এ সময় উপাচার্যকে শেল্টার দেয়া ছাত্রলীগ নেতাদের সবারই নিয়োগ নিশ্চিত করেছেন তিনি।

নিয়োগ পাওয়াদের মধ্যে রয়েছেন ছাত্রলীগের ৪৭ নেতাকর্মী। তাদের তালিকা জাগো নিউজের হাতে এসেছে।

তালিকা থেকে জানা গেছে, নিয়োগ পাওয়াদের মধ্যে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের বর্তমান ও সাবেক কমিটির ৩১, মহানগর ছাত্রলীগের ৯ এবং জেলা ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সাত নেতাকর্মী।

তারা সবাই উপাচার্যের পক্ষে ইউজিসির তদন্ত কমিটির কার্যক্রম ৭৩ এর অ্যাক্ট মেনে হচ্ছে না দাবি করে গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালন করেন।

এছাড়া শেষ সময়ে বিতর্কের মুখে পড়ায় বেশ কিছু শিক্ষক উপাচার্যর সঙ্গ ত্যাগ করেন। তবে শেষ সময়ে পাশে থাকা বিশ্বস্ত শিক্ষকদের সন্তান-স্ত্রীদের চাকরি নিশ্চিত করেছেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. সোবহান।

শিক্ষক পরিবারের চাকরি হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. চিত্তরঞ্জন মিশ্র, ভূতত্ত ও খনিবিদ্যা বিভাদের অধ্যাপক ড. সামসুদ্দিন খোকন, চিকিৎসা মনোবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক নূরে আলম, অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মাহমুদ হোসেন রিয়াজী, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক অনিক মাহমুদের স্ত্রী পুত্র রয়েছেন।

সালমান শাকিল/এএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]