ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি মুন্সীগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:৩৪ পিএম, ১২ আগস্ট ২০১৭ | আপডেট: ০৮:০৮ পিএম, ১২ আগস্ট ২০১৭
ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করা হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল

ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ চেয়ে আবেদন অথবা এক্সপাঞ্জের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এ ব্যাপারে যত দ্রুত সম্ভব আইন মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে বলেও তিনি জানান।

শনিবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কাজিরপাগলা এ টি ইনস্টিটিউশনে এক অনুষ্ঠান শেষে অ্যাটর্নি জেনারেল সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

অনুষ্ঠানে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, খালি হাতে এসে ভরা হাতে যাওয়াই রাজনীতি নয়। ভরা হাতে এসে খালি হাতে যাওয়ার মন মানসিকতা তৈরি করে রাজনীতিতে আশা উচিত। এতে করে দেশের কল্যাণ হবে, জনগণ উপকৃত হবে।

তিনি বলেন, এই মাস শোকের মাস। এই মাস আমাদের মনে করিয়ে দেয় বঙ্গবন্ধুর হত্যার ঘটনা। এ হত্যাকাণ্ডের ইতিহাস কারবালার ইতিহাসকে ছাড়িয়ে গেছে। বঙ্গবন্ধু আমাদের জন্য রেখে গেছেন তার নিজেরই আত্মজীবনী।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা পরিচালনা করতে গিয়ে সাক্ষীদের দেয়া তথ্যে জেনেছি- কী নিদারুন হত্যাকাণ্ড এটি। আমি স্বচ্ছতার সঙ্গে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা ও যুদ্ধাপরাধীর মামলা পরিচালনা করেছি।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে মাহবুবে আলম বলেন, তোমরা বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী পড়লে বঙ্গবন্ধু এ দেশকে কিভাবে সু-সংগঠিত করার স্বপ্ন দেখেছিল তা জানতে পারবে। তোমরা বেশি বেশি বই পড়বে। লেখা পড়ার কোনো বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম শিক্ষার্থীদের পড়ার জন্য বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীসহ বিভিন্ন শিক্ষামূলক বই প্রদান করেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বাশারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যাপক ডা. মো. আবু ইউসুফ ফকিরও বক্তব্য দেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে লৌহজং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মিলন কৃষ্ণ হালদার, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় পর্ষদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, কনকসার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সেলিম আহমেদ মোড়ল, টঙ্গীবাড়ী সোনারং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক স্বপন মাঝি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ভবতোষ চৌধুরী নুপুর/আরএআর/আরআইপি/জেআইএম