মুন্সীগঞ্জে পুলিশের গুলিতে সন্ত্রাসী নিহত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি মুন্সীগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৩:৫৩ পিএম, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
মুন্সীগঞ্জে পুলিশের গুলিতে সন্ত্রাসী নিহত

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় পুলিশের গুলিতে ২২টি মামলার আসামি তারেক রহমান রিংকু (২৪) নামে এক সন্ত্রাসী নিহত হয়েছেন। আসামি ধরতে গিয়ে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গোলাগুলিতে পুলিশের এক এসআই গুলিবিদ্ধ ও দুই এএসআই আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে সদর উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়ন ও শিলই ইউনিয়নের মধ্যবর্তী দেওয়ান কান্দি এলাকায় ঘণ্টাব্যাপী এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। সদর থানা পুলিশ ও জেলা ডিবি পুলিশ যৌথভাবে এই অভিযান পরিচালনা করে।

নিহত রিংকুর কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। রিংকু দেওয়ানকান্দি গ্রামের মো. জসিম দেওয়ানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, সদর থানায় কর্মরত গুলিবিদ্ধ এসআই সঞ্জয় কুমার বণিককে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তার ডান পায়ে গুলি লেগেছে। এদিকে আহত পুলিশের এএসআই সোহেল রানা ও এএসআই মো. নুর হোসেন বর্তমানে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম পিপিএম জানান, রাতে রিংকুর বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়ে সকালে পুলিশ বাংলাবাজার ও শিলই ইউনিয়নে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সান্ত্রাসী রিংকু পুলিশের ওপর গুলি ছোড়ে। গোলাগুলির একপর্যায়ে পুলিশের এক এসআইসহ সন্ত্রাসী রিংকু গুলিবিদ্ধ হয় ও আহত হয় অপর দুই পুলিশ সদস্য। রিংকুকে গুরুতর আহত অবস্থায় মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করের। রিংকু হত্যা, ডাকাতি, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজিসহ ২২টি মামলার আসামি।

ভবতোষ চৌধুরী নুপুর/আরএআর/পিআর