‘তাদের শুরু ভাঙা সুটকেস দিয়ে, এখন সম্পদের পাহাড়’

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ১১:৩৯ পিএম, ২২ মার্চ ২০১৮

মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেন, খালেদার পরিবার দুর্নীতির পরিবার, চুরিতে চ্যাম্পিয়ন, দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন, মিথ্যাচারে চ্যাম্পিয়ন। ভাঙা সুটকেস দিয়ে তাদের শুরু হয়েছিল। এখন তারা সম্পদের পাহাড় গড়েছে।

তিনি বলেন, এতিমের টাকা যারা দুর্নীতি করে তারা জনগণের জন্য, দেশের জন্য নয়; নিজেদের আখের গোছাতে রাজনীতি করে। বিএনপির রাজনীতি হত্যার রাজনীতি, মানুষ পুড়িয়ে মারার রাজনীতি।

বৃহস্পতিবার রাতে নাটোরের সিংড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় দুই কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত চারতলা বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন উদ্বোধন শেষে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত গোলই আফরোজ সরকারি কলেজ মাঠের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বিএনপিকে উদ্দ্যেশ্য করে বলেন, চোরের নজর বোচকার দিকে। তাই এতিমের টাকা মেরে খাওয়ায় বিএনপি নেত্রীর সাজা হয়েছে। আর তার দলের মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন- খালেদা জিয়া একদিন জেলে থাকলে বিএনপির ১০ লাখ করে ভোট বাড়ে। পরোক্ষভাবে ফখরুল খালেদা জিয়াকে জেলে রাখার সুপারিশ করছেন।

তিনি বলেন, একাত্তরের গণকবরগুলো সংরক্ষণ এবং মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দিয়েছে সরকার। তাছাড়া মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সবচেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা দিয়েছে আওয়ামী লীগ সরকার। আগামী মাস থেকে দেশের সব মুক্তিযোদ্ধাকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ ওহিদুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা এ দেশের সম্পদ, তাদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আজ স্বাধীন বাংলাদেশ। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বে এগিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ তলাবিহীন ঝুড়ি নয়, বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। উন্নত দেশের কাতারে এগিয়ে নিতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বঙ্গবন্ধু শোষিত মানুষের কণ্ঠস্বর ছিলেন। তিনি মানবতার পক্ষে নিপীড়িত মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন।

সভায় আরও বক্তব্য দেন নাটোর জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন, পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো. জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সন্দ্বীপ কুমার সরকার, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী সুবাস কুমার সাহা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল অদুদ দুদু প্রমুখ।

রেজাউল করিম রেজা/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :