ভাতিজার দায়ের কোপে প্রাণ গেল চাচার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৬:৪৯ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮ | আপডেট: ০৬:৫৬ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮
ভাতিজার দায়ের কোপে প্রাণ গেল চাচার

মামলায় হাজিরা দিতে যাওয়ার সময় আব্দুল লতিফ ঘরামি (৫০) নামের এক সাবেক ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বারকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তারই ভাতিজা আল আমিন। এ সময় লতিফের সঙ্গে থাকা তার চাচাত ভাই মো. ইদ্রিস ঘরামিকেও (৩৫) কুপিয়ে মারাত্মক আহত করেছে ঘাতক আল আমিন ও তার লোকজন।

রোববার পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া সদর ইউনিয়নের আন্ধারমানিক তুলাতলা সড়ক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত লতিফের বাড়ী মঠবাড়িয়া সদর ইউনিয়নের বকসির ঘটিচোরা গ্রামে।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, রোববার সকাল ৬টার দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বখসির ঘটিচোড়া গ্রামের বাসিন্দা মঠবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার আব্দুল লতিফ ঘরামি তার চাচাত ভাই মো. ইদ্রিস ঘরামিকে নিয়ে পিরোজপুরে আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে যাচ্ছিলেন। পথে আন্দারমানিক গ্রামের তুলাতলা নামক স্থানে পৌঁছালে সেখানে ৭-৮ জন লোক নিয়ে ওৎ পেতে থাকা আল আমিন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে প্রথমে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে পথে সকাল সাড়ে নয় টার দিকে আব্দুল লতিফের মৃত্যু হয়। আহত ইদ্রিস ঘরামিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঠবাড়িয়া থানার ও সি মো. গোলাম সরোয়ার জানিয়েছেন, নিহত আব্দুল লতিফ ঘরামি ও তার আপন ভাই আব্দুল করিম ঘরামির সঙ্গে একাধিক মামলা চলমান রয়েছে। হত্যার ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

হাসান মামুন/আরএ/পিআর