ওষুধ বিক্রেতার অপারেশনের পরই যুবকের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি মেহেরপুর
প্রকাশিত: ০৪:১২ পিএম, ১৭ মে ২০১৮
ওষুধ বিক্রেতার অপারেশনের পরই যুবকের মৃত্যু

মেহেরপুরের আলমপুরে ওষুধ বিক্রেতা ফকরুজ্জামান ওরফে ফকুর অপারেশনে সাইদুর রহমান (১৯) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আলমপুর বাজারের ফকুর তামান্না ফার্মেসিতে নাকের পলিপাস অপারেশনের পরই ওই যুবকের মৃত্যু হয়। মৃত সাইদুর রহমান গাংনী উপজেলার গাড়াডোব গ্রামের দিনমজুর সানোয়ার হোসেনের ছেলে।

মৃতের পরিবারিক সূত্রে জানা যায়, গাড়াডোব গ্রামের ফকরুজ্জামান ওরফে ফকু আলমপুর গ্রামে ফার্মেসি খুলে চিকিৎসা দিয়ে আসছে। কোনো ডাক্তারি সনদ না থাকলেও তিনি বিভিন্ন প্রকার অপারেশন করে থাকেন।

বৃহস্পতিবার সকালে সাইদুরের নাকের পলিপাস অপারেশনের জন্য পরিবারের লোকজন ফকুর কাছে নিয়ে যায়। নাকের অপারেশন করা অবস্থায় সাইদুরের মৃত্যু হয়।

বিষয়টি ধামাচাপা দিতে মৃত সাইদুরকে গুরুতর অসুস্থ দাবি করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায় ফকু। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে সাইদুরকে রেখে কৌশলে পালিয়ে যায় ফকু।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এহসানুল হক বলেন, হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই সাইদুরের মৃত্যু হয়েছে। নাকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে, ফার্মেসি চিকিৎসকের অপারেশনে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় এলাকাজুড়ে বইছে ক্ষোভ ও প্রতিবাদের ঝড়। সন্তানকে হারিয়ে পাগলপ্রায় নিহতের মা ও বাবা। ছেলের মৃত্যুর বিষয়ে ফকুর বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আসিফ ইকবাল/এএম/জেআইএম