ব্রিফকেসে গৃহকর্মীর লাশ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি কিশোরগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:০৯ এএম, ২৫ মে ২০১৮
আটক কাজল রেখা

ঢাকার আব্দুল্লাহপুরে ৮ বছরের শিশু গৃহকর্মীকে হত্যার পর ব্রিফকেসে করে মরদেহ ফেলে দেয়ার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত কাজল রেখাকে কিশোরগঞ্জ থেকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে শহরের গাইটাল বাসস্ট্যান্ডের কাছে একটি মোবাইলের দোকান থেকে দক্ষিণখান থানা পুলিশ তাকে আটক করে। আটকের পর রাতেই তাকে ঢাকায় নেয়া হয়।

দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তপন চন্দ্র সাহা বলেন, নিহত শিশুটির নাম সাথী। সে আব্দুল্লাহপুরের ফায়দাবাদ এলাকায় কাজল রেখার বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতো। কাজল রেখা তার মামা শরীফের সহযোগিতায় শিশুটিকে নৃসংশভাবে হত্যার পর মরদেহ একটি বড় ব্রিফকেসে ভরে রাখে। পরে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় আব্দুল্লাহপুরের কোটবাড়িতে পুলিশ চেকপোস্টের সামনে লাগেজটি ফেলে পালানোর সময় শরীফকে (৪০) আটক করা হয়। এ সময় কৌশলে পালিয়ে যায় কাজল রেখা। পরে শরীফকে সঙ্গে নিয়ে রাতে কিশোরগঞ্জ শহরে অভিযান চালায় দক্ষিণখান থানা পুলিশ।

ওসি জানান, শিশুটির শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কাজল রেখা মেয়েটিকে হত্যার পর লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে বড় লাগেজে করে নিয়ে যাচ্ছিল। কাজল রেখার বাড়ি বরিশালে। তিনি ঢাকার একটি ডিজে পার্টিতে নাচতেন। তার মামা শরীফের বাড়ি যশোরে। অপরদিকে নিহত শিশুটির বাড়ি ময়মনসিংহে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নূর মোহাম্মদ/এফএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :