বরিশালে যুবলীগ নেতার ব্যতিক্রমী প্রচারণা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ১১:৪০ এএম, ১৪ জুন ২০১৮

শেখ হাসিনা সরকারের নানা উন্নয়ন তুলে ধরে আসন্ন বরিশাল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন ও জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে মুলাদী ও বাবুগঞ্জ উপজেলায় ব্যতিক্রমধর্মী প্রচারণা শুরু করেছেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান।

সরকারের নানা উন্নয়ন ও জনকল্যাণমূলক বিভিন্ন কাজের কথা উল্লেখ করে পোস্টার, লিফলেট ও হ্যান্ডবিল তৈরি করে সবার হাতে হাতে পৌঁছে দিচ্ছেন এই যুবলীগ নেতা।

যুবলীগ নেতা মো. মিজানুর রহমানের উদ্যোগে মুলাদী-বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রত্যেকটি হাট-বাজার, স্কুল-কলেজ থেকে শুরু করে জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পোস্টার, লিফলেট ও হ্যান্ডবিল বিলি করা হয়েছে।

পোস্টার, লিফলেট ও হ্যান্ডবিল বিলি শোভা পাচ্ছে আওয়ামী লীগের উন্নয়নের ফিরিস্তি। এতে বঙ্গবন্ধু ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি রয়েছে। কয়েক মাস ধরে এসব বিলবোর্ড লাগানো হচ্ছে।

হ্যান্ডবিলে যুবকদের ছবি দিয়ে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘আমাদের দিয়েছে কর্মসংস্থান’। কারণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়, বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের সময়-যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, কম্পিউটার হাইটেক পার্ক স্থাপন, ব্রডব্যান্ডের সম্প্রসারণ ৪০ শতাংশে উন্নীতকরণ ও তথ্য প্রযুক্তিকে তরুণদের হাতের নাগালে নিয়ে যাওয়া। নারীদের ছবি দিয়ে হ্যান্ডবিলে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘পারিবারিক সহিংসতা প্রতিরোধ আইন ২০১০ প্রণয়ণ, নারীর অর্থনৈতিক প্রাপ্তি বৃদ্ধিকরণ, জেন্ডার সংবেদনশীল বাজেট প্রণয়ণ, মাতৃত্বকালীণ ভাতা ও ছুটি ছয়মাসে উন্নীতকরণ, নারীর মত প্রকাশের মাধ্যমে সম্প্রসারণ।’

বৃদ্ধদের ছবি দিয়ে লিফলেট হ্যান্ডবিলে উল্লেখ করা হয়, ‘মা-বাবার ভরণপোষণ ২০১৩ প্রণয়ণ, বয়স্কভাতা বৃদ্ধিকরণ, বয়স্কদের জন্য শান্তিনিবাস নির্মাণ, স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ’।

এ বিষয়ে যুবলীগের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান বলেন, সারাদেশের সচেতন নাগরিকরা চান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার জন্যই আবার আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনা দরকার। পৃথিবীর বহু দেশে শেখ হাসিনার জয়জয়কার। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের মর্যাদা বৃদ্ধি ও ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়েছে। কৃষি, শিক্ষা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন, সড়ক-সেতু, রেল, নৌ ও স্থানীয় যোগাযোগ অবকাঠামো, তথ্যপ্রযুক্তি, সামাজিক নিরাপত্তা, ভূমিহীনদের ভূমিদান, নারী ও শিশু উন্নয়ন, পল্লী উন্নয়ন, সমবায়, বস্ত্র, পাট, প্রতিরক্ষা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক, সংস্কৃতিসহ সবক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এছাড়া যুদ্ধাপরাধীদের বিচার, জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ, মাদকবিরোধী অভিযান, ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণ, নারীর ক্ষমতায়ন এতো উন্নয়ন ১৯৭৫ সালের পর আর কখনো হয়নি।

বরিশাল-৩ আসন থেকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী মিজানুর রহমান বলেন, শেখ হাসিনার অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণেই মাতৃভাষা বাংলা অন্যতম রাষ্ট্রভাষার আনুষ্ঠানিক রাষ্ট্রীয় মর্যাদা লাভ করেছে। বর্তমান সরকারের আমলেই দেশ সর্বপ্রথম খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে। মানবাধিকার নিশ্চিত করতে গঠন করা হয়েছে কার্যকর স্বাধীন মানবাধিকার কমিশন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনায় বিশ্বে রোল মডেল এখন বাংলাদেশ। দেশের সাধারণ মানুষ চায় উন্নয়ন-আওয়ামী লীগ তা করতে পারায় দেশ আজ মধ্যমায়ের দিকে এগিয়ে গেছে। স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। দেশজুড়ে উন্নয়নের জোয়ারের কারণে নৌকার ওপর আস্থা রাখছে মানুষ।

মিজানুর রহমান বলেন, আমাদের উচিত দেশের উন্নয়নগুলো সবাইকে জানিয়ে দেয়া। তাতে দেশের আশাহত ও দিশেহারা মানুষগুলো ভরসা পাবেন। ২০১৯ এর একাদশ জাতীয় নির্বাচনে সাধারণ মানুষ যোগ্য দলকে জয়ী করবেন।

মিজানুর রহমান তার ব্যতিক্রমধর্মী প্রচারণার হ্যান্ডবিলে সাধারণ জনগণের প্রতি প্রতিটি নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে উল্লেখ করেন, ‘চলমান উন্নয়নের সঙ্গে থাকুন-উন্নত ও সমৃদ্ধিশালী বাংলাদেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর আস্থা রাখুন’।

সাইফ আমীন/এএম/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :