বরিশালে কমছে অস্থায়ী পশুর হাট

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ১১:৩২ পিএম, ১০ আগস্ট ২০১৮

ঈদুল আজহার বাকি মাত্র ১২ দিন। বরিশাল নগরীতে এ উপলক্ষে স্থায়ী দুটি পশুর হাট ছাড়াও প্রতিবছর ৮-১০টি অস্থায়ী হাট বসতো। কিন্ত এ বছর নগরীতে অস্থায়ী হাট নিয়ে আগ্রহ নেই স্থানীয় উদ্যোক্তাদের।

গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত বরিশাল সিটি কর্পোরেশনে (বিসিসি) মাত্র একটি অস্থায়ী হাটের আবেদন পড়েছে। এদিকে  সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত দুটি স্থায়ী পশুর হাটের ইজারাদার পাওয়া যাচ্ছে না।

বিসিসির হাটবাজার শাখার তত্ত্বাবধায়ক মো. নুরুল ইসলাম জানান, দুটি স্থায়ী হাটের জন্য দেড়মাস আগে পরপর তিনবার দরপত্র আহ্বান করা হলেও কোনো ইজারাদারই ওই দরপত্রে অংশগ্রহণ করেননি। একটি সিডিউলও কেউ কেনেননি।

এর কারণ জানতে চাইলে নুরুল ইসলাম বলেন, কর্পোরেশন পরিচালিত স্থায়ী বাঘিয়া পশুরহাটের বাৎসরিক ইজারা মূল্য ধরা হয়েছে এক লাখ ৮০ হাজার এবং পোর্ট রোড পশুর হাটের বাৎসরিক ইজারামূল্য দেড় লাখ টাকা। লোকসানের আশঙ্কায় ওই মূল্য দিয়ে কোনো ইজারাদার হাট দুটির ইজারা নেননি। গতবছরও একই অবস্থা হয়েছিল। ফলে এবারও নিজস্ব জনবল দিয়ে স্থায়ী এই দুটি হাট পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসি।

অপরদিকে গতবছরও নগরীর বিভিন্ন স্থানে সাতটি অস্থায়ী পশুর হাট বসেছিল। কিন্ত এবার বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত নগরীর কালিজীরায় নবজাগরন ক্লাব নামক একটি প্রতিষ্ঠান সেখানে পশুর হাটের জন্য বিসিসিতে আবেদন করেছে।

অস্থায়ী হাটের এমন অবস্থা নিয়ে কিছুটা হতাশা প্রকাশ করেছেন বিসিসির হাটবাজার শাখার ওই তত্ত্বাবধায়ক। তিনি বলেন, গত কয়েক বছর যাবত অস্থায়ী হাট নিয়ে স্থানীয় উদ্যোক্তদের মধ্যে ব্যাপক তোড়জোড় থাকলেও এবার দেখা যাচ্ছে না। বৃহস্পতিবার মাত্র একটি আবেদন জমা পড়েছে।

নুরুল ইসলাম জানান, কাউনিয়া টেক্সটাইল সংলগ্ন মাঠ, রূপাতলী টেক্সইলের সামনে ও ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে অস্থায়ী হাট স্থাপনের আগ্রহ জানিয়ে উদ্যোক্তারা মোবাইলে যোগাযোগ করেছেন। আগামী সপ্তাহে তারা আবেদন নিয়ে আসতে পারেন। তবে গত বছরের তুলনায় এবার অস্থায়ী হাটের সংখ্যা কম হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জেডএ

 

আপনার মতামত লিখুন :