সাতক্ষীরায় গণপিটুনির ঘটনায় মামলা, আসামি সাত হাজার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৬:৫৬ পিএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
ফাইল ছবি

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর বাজারে পুলিশের কাছ থেকে চেয়ারম্যান হত্যা মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য আব্দুল জলিলকে ছিনিয়ে নিয়ে গণপিটুনি দিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে।

রোববার সকালে কালিগঞ্জ থানার এসআই রাজীব হোসেন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা সাত হাজার মানুষকে আসামি করে মামলাটি করেন। তবে মামলায় কেউ আটক হয়নি।

কালিগঞ্জ থানার ওসি হাসান হাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শনিবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য আব্দুল জলিলকে নিয়ে পুলিশ অস্ত্র উদ্ধারে গেলে বিক্ষুব্ধ হাজারো মানুষ তাকে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ইউপি সদস্য আব্দুল জলিল। তিনি কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের শঙ্করপুর গ্রামের হাবিবুল্লাহ গাইনের ছেলে।

উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর রাত পৌনে ১১টার দিকে কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর বাজারে যুবলীগ অফিসে জাপা নেতা ইউপি চেয়ারম্যান কেএম মোশাররফ হোসেনকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বত্তরা। এ ঘটনায় পরদিন নিহত চেয়ারম্যানের মেয়ে বাদী হয়ে কালিগঞ্জ থানায় ১৯ জনকে এজাহার নামি ও অজ্ঞাতনামা আরও ২০ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

এ মামলায় পুলিশ এ পর্যন্ত ৫ জনকে আটক করেছে। যার মধ্যে তিনজন আদালতে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দিতে তারা গণপিটুনিতে নিহত ইউপি সদস্য আব্দুল জলিলকে হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে উল্লেখ করেন।

আকরামুল ইসলাম/এফএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :