নির্বাচন এলে নির্যাতন শুরু হয় : রিয়াজুল হক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কক্সবাজার
প্রকাশিত: ০৩:৫৮ পিএম, ০৫ নভেম্বর ২০১৮

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে এবং পরে মানবাধিকার লঙ্ঘনের আশঙ্কা রয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক।

তিনি বলেছেন, নির্বাচন এলে নির্যাতন শুরু হয়। এতে মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘন হয়। নির্বাচনী সহিংসতা এদেশে কোনোভাবেই কাম্য নয়। নির্বাচনে জনগণের ভোট প্রয়োগের নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করতে এখনই উদ্যোগ নেয়া প্রয়োজন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সার্বক্ষণিক পর্যাবেক্ষণ করবে মানবাধিকার কমিশন।

সোমবার দুপুরে কক্সবাজারে ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি’ শীর্ষক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

কাজী রিয়াজুল হক বলেন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন রোহিঙ্গাদের সুষ্ঠু প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে বরাবরই আন্তরিকভাবে কাজ করে আসছে। রোহিঙ্গারা যাতে তাদের সঠিক দাবি পূরণ করে স্বদেশে ফেরত যেতে পারে সে লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকারসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরও চাপ সৃষ্টি করতে হবে। কোনোভাবে যাতে মানবাধিকার লঙ্ঘন না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোনো পক্ষ যাতে রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করে পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে না পারে সেজন্য প্রশাসনকে সতর্ক থাকতে হবে। দুই দেশের চুক্তির ভিত্তিতে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর কথা বলা হচ্ছে। রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফেরত গিয়ে যেন তাদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতে পারে তার জন্য আন্তর্জাতিকভাবে সজাগ দৃষ্টি এবং চাপ অব্যাহত রাখতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- রামু কেন্দ্রীয় সীমা বিহারের সহকারী পরিচালক প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষু ও জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট রণজিত দাশ প্রমুখ।

সায়ীদ আলমগীর/এএম/এমএস