ছবি দেখিয়ে কোটা আন্দোলনের নেতাকে পেটাল ছাত্রলীগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাবি
প্রকাশিত: ০৯:৩০ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৮

কোটা সংস্কার, নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনসহ বেশ কয়েকটি আন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থীকে ডেকে এনে মারধর করেছেন স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ কয়েকজন নেতাকর্মী তাকে মারধর করেন। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ছাত্রলীগের দলীয় টেন্টে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার শিক্ষার্থী নাফিউল ইসলাম জীবন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র অধিকার রক্ষা আন্দোলনের যুগ্ম আহ্বায়ক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতারা হলেন- শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া, সহ-সভাপতি সাব্বির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান মিশু ও ইমতিয়াজ আহমেদ।

জীবনের অভিযোগ, ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিভাগের বড় ভাই ইমতিয়াজ আহমেদ আমাকে ফোন দিয়ে প্রথমে বঙ্গবন্ধু হলে ডাকেন। আমি তাকে স্যারের সঙ্গে কথা বলে আসছি বলে জানাই। এর কিছুক্ষণ পর আমাকে টুকিটাকিতে ডাকেন। আমি সেখানে গেলে তিনি লাইব্রেরির পেছনে (ছাত্রলীগের দলীয় টেন্টে) আসতে বলেন। সেখানে আসলে আমাকে চড়-থাপ্পড় এবং কিলঘুষি মারেন ছাত্রলীগের নেতারা।

মারধরের কারণ জানতে চাইলে জীবন বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন, নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত আছি আমি। ছাত্রদলের কিছু কার্যক্রমে অংশ নেয়ার ছবি আছে তাদের মোবাইলে। সেসব ছবি দেখিয়ে আমাকে পেটাতে থাকেন তারা।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, তার ফেসবুকে কিছু সরকারবিরোধী স্ট্যাটাস পাওয়া যায়। তবে তাকে মারধর করা হয়নি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, এ ধরনের কোনো ঘটনা আমার জানা নেই। এ বিষয়ে কেউ অভিযোগও করেনি।

সালমান শাকিল/এএম/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :