মামা সিইসি হওয়ার পরপরই চাকরি ছেড়ে দেন সাজু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ২৫ নভেম্বর ২০১৮

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে (গলাচিপা-দশমিনা) পটুয়াখালী-৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার ছোট বোনের ছেলে এস এম শাহজাদা সাজু।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯০ সালে পটুয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে ডিগ্রি পাস করেন সাজু। এর আগে ১৯৮৯ সালে পটুয়াখালী সরকারি কলেজ হোস্টেল ছাত্রলীগের সক্রিয় কর্মী ছিলেন তিনি। লেখাপড়া শেষ করে তিনি কর্মজীবনে পদার্পণ করেন। এরপর ঢাকার গ্রেট ওয়াল টাইলসের ডিজিএম হিসেবে দীর্ঘদিন কর্মরত ছিলেন সাজু।

আগের খবরটি পড়তে ক্লিক করুন : সিইসির ভাগিনা পেলেন আ.লীগের মনোনয়ন

পরবর্তীতে মেজ মামা কেএম নূরুল হুদা প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব গ্রহণ করার পর চাকরি ছেড়ে দেন। পরবর্তীতে বরিশাল ও পটুয়াখালীতে সুন্দরবন টাইলস নামে দুটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করেন তিনি।

শাহজাদা সাজুর মেজ ভাই মো. মনিরুজ্জামান মনিরের শ্যালক শাওন জাগো নিউজকে জানান, গলাচিপা দশমিনার শেষ বর্ডার বেতাগী সানকীপুর এলাকার বাসিন্দা এলজিইডির সাবেক ইঞ্জিনিয়ার মো. লুৎফুর রহমানের বড় ছেলে এস এম শাহজাদা সাজু। তিন ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার বড়।

তিনি আরও জানান, এস এম শাহজাদা সাজু সিরামিক্সের ব্যবসা করেন। মেজ ভাই পটুয়াখালী ব্র্যাক ব্যাংকে কর্মরত। আর ছোট ভাই একটি সিপিং কোম্পানিতে কর্মরত রয়েছেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিইসি কেএম নূরুল হুদার বড় ভাই আবু তাহের খান জাগো নিউজকে জানান, আমাদের তিন ভাই, সাত বোনের মধ্যে সাজুর মা সকিনা খানম সবার ছোট।

তিনি আরও জানান, সাজুকে নির্বাচন করার জন্য আমরা সমর্থন দিয়েছি। ছাত্রজীবন থেকে সে (সাজু) আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তবে কোনো পোস্ট না থাকলেও সে সক্রিয় কর্মী। সাজুর পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

উল্লেখ্য, গলাচিপা-দশমিনা উপজেলা নিয়ে গঠিত পটুয়াখালী-৩ আসনে আওয়ামী লীগের ২২ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। আজ রোববার আওয়ামী লীগের ‘নৌকা’ মার্কার প্রার্থী হিসেবে এসএম শাহজাদা সাজুকে মনোনীত করা হয়।

মহিব্বুল্লাহ্ চৌধুরী/এমএএস/আরআইপি