হাসপাতালে নারীর গলাকাটা মরদেহ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নাটোর
প্রকাশিত: ১২:৫২ পিএম, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮
প্রতীকী ছবি

নাটোরে একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে ওই হাসপাতালের নারী ব্যবস্থাপক মিতা খাতুনের (২৫) গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে শহরের চকরামপুর এলাকার জেনারেল হাসপাতালে মিতা খাতুনের কক্ষ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত মিতা খাতুন জেলার নলডাঙ্গা উপজেলার নশরতপুর গ্রামের লাল মোহাম্মদের মেয়ে।

খবর পেয়ে নাটোর সদর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী জালাল উদ্দিনসহ গোয়েন্দা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নাটোর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) ফরিদুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের মতো আজ সকাল ৬টার দিকে হাসপাতালের মূল গেটের তালা খুলে দিয়ে মিতা তার রুমে চলে যান। এরপর সকাল ১০টার দিকে রোগীর স্বজনরা ওই নারীর গলাকাটা মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে চিৎকার শুরু করেন। পরে হাসপাতালের স্টাফ পুলিশকে জানালে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে নাটোর থানার ওসি কাজী জালাল উদ্দিন বলেন, কী কারণে মিতাকে এভাবে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে সে বিষয়ে পুলিশ এখনও কিছু জানতে পারেনি। তবে হত্যা রহস্য উদঘাটনে পুলিশি তদন্ত চলছে।

রেজাউল করিম রেজা/এফএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :