হাত ধরে চলার মানুষটি হারিয়ে গেল মিলন বেগমের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ০৯:৪৬ পিএম, ২০ জানুয়ারি ২০১৯
প্রতীকী ছবি

আউয়াল মিয়া। বয়স সত্তরেরও অধিক। রাস্তা পারাপারের সময় স্ত্রীর হাত ধরেই তিনি হাটছিলেন। আকস্মিকভাবে একটি বাস এসে তাকে চাপা দিয়ে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়ে পরপারে পাড়ি জমান আউয়াল মিয়া।

বিয়ের পর যার হাত ধরে পিত্রালয় ছেড়ে শ্বশুর বাড়িতে এসেছিলেন, একসঙ্গে পথ চলতে গিয়ে আজ তাকেই হারাতে হয়েছে। কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরিপুর বাসস্ট্যান্ডের অদূরে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় আহত হন স্ত্রী মিলন বেগমও।

হাইওয়ে পুলিশের দাউদকান্দি থানা পুুলিশের ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, রোববার রাত সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডের অদূরে স্বামী-স্ত্রী দুজনে হাত ধরে রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এসময় ঢাকা থেকে কুমিল্লাগামী দ্রুতগতির অজ্ঞাতনামা একটি বাস তাদেরকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন দাউদকান্দির কানরা গ্রামের মৃত আনছার আলীর ছেলে আউয়াল মিয়া। এসময় গুরুতর আহত হন তার স্ত্রী মিলন বেগম (৬০)। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে সুরতহাল শেষে নিহত আউয়াল মিয়ার মরদেহ রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

কামাল উদ্দিন/এমএএস/জেআইএম