ছাত্রীর শরীরে হাত, প্রধান শিক্ষককে গণধোলাই নারীদের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝিনাইদহ
প্রকাশিত: ০৭:২৮ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৯

ঝিনাইদহের আলহেরা ইসলামী ইনস্টিটিউট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে একই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে প্রধান শিক্ষক আব্দুস সালামকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার শিক্ষক আব্দুস সালাম ধোপাঘাটা গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত মতিন মুন্সীর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) এমদাদুল হক বলেন, শিক্ষক আব্দুস সালাম দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যালয়টির একাধিক ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করতো। যৌন নিপীড়নের শিকার ছাত্রীরা অভিভাবকদের জানালে বুধবার দুপুরে ছাত্রী ও অভিভাবকরা বিদ্যালয়টি ঘেরাও করেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। একই সঙ্গে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী এক ছাত্রীর বাবা বলেন, প্রধান শিক্ষক প্রায়ই আমার মেয়ের শরীরের স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দিত। প্রথম দিকে ভয়ে-লজ্জায় কিছু না বললেও মঙ্গলবার বাড়িতে এসে কান্না করে মাকে বিষয়টি জানায়। পরে বিদ্যালয় ঘেরাও করে শিক্ষক আব্দুস সালামকে মারধর করা হয়।

ঝিনাইদহ সদর থানা পুলিশের ওসি মিজানুর রহমান খান বলেন, চতুর্থ শ্রেণির তিন ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় যৌন হয়রানি করে প্রধান শিক্ষক আব্দুস সালাম। ছাত্রীরা বিষয়টি বাড়িতে জানালে বুধবার দুপুরে বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রধান শিক্ষককে মারধর করে ছাত্রীদের মায়েরা। এরপর আব্দুস সালামকে থানায় নিয়ে আসা হয়। যৌন নির্যাতনের অভিযোগে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে বুধবার বিকালে মামলা হয়েছে। এক ছাত্রীর অভিভাবক বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

এএম/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]