ভাসুরের ছুরিকাঘাতে গৃহবধূর মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর
প্রকাশিত: ০৯:২৪ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০১৯

চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলায় ভাসুরের ছুরিকাঘাতে আহত গৃহবধূ কোহিনুর (৩২) পাঁচদিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে অবশেষে মারা গেছেন।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ৩টা ৪৫ মিনিটে তিনি মারা যান। এ ঘটনা শুনে স্থানীয় সংসদ সদস্য মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ঢামেকে ছুটে যান। সেই সঙ্গে শোকাহত পরিবারকে সমবেদনা জানান তিনি।

গত ১৮ এপ্রিল রাত ২টার দিকে শাহরাস্তি পৌর এলাকার ভাটনীখোলা বেপারী বাড়িতে চাচাতো ভাসুর জহিরুল ইসলাম তার বসতঘরের সিঁধ কেটে ভেতরে ডুকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। ওই সময় তার মেয়ে মুক্তা আক্তারও আহত হয়। এ ঘটনায় শাহরাস্তি থানায় পাঁচজনকে আসামি করে একটি হত্যা চেষ্টার মামলা করেন দেবর হাবিবুর রহমান।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবদুল আউয়াল গত শনিবার রাতে তিনজনকে গ্রেফতার করে চাঁদপুর জেলা কারাগারে পাঠিয়েছেন। আদালত অভিযুক্তের মা আমিরুন নেসাকে জামিন দিলেও বাকি দুইজনের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, দুই পরিবারের মধ্যে বিয়ের একটি ঘটনা নিয়ে দ্বন্দ্ব চলছে। ওই দ্বন্দ্বের জের ধরে জহির এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়।

শাহরাস্তি থানা পুলিশের ওসি মো. শাহ আলম বলেন, এ ঘটনায় মামলা হওয়ার পরপরই তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ইকরাম চৌধুরী/এএম/এমএস