রংপুরে অটোরিকশা ছিনতাই চক্রের নারী সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রংপুর
প্রকাশিত: ০১:১৩ এএম, ১৩ মে ২০১৯

যাত্রীবেশে চালককে অজ্ঞান করে অটোরিকশা ছিনতাইকারী চক্রের রুমি বেগম (২৬) নামে এক নারী সদস্যকে আটক করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরপিএমপি) । শনিবার রাত দেড়টার দিকে রংপুর থেকে অটোরিকশা ছিনতাই করে পালানোর সময় কাউনিয়া থেকে তাকে আটক করে নগরীর তাজহাট থানা পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রোকোনুজ্জামান। তিনি জানান, আটককৃত রুমি বেগম মিঠাপুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ মন্ডলপাড়া এলাকার কাবেজ আলীর মেয়ে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাত ৯টার দিকে একজন অপরিচিত যুবক (৩২) ও একজন নারী (২৬) সাতমাথা এলাকা হতে মাইদুল ইসলাম নাকে এক ব্যক্তির অটোরিকশা ভাড়া নেয়। পরবর্তীতে শহরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে রবার্টসনগঞ্জ এলাকায় অটোচালককে একটি জুসের বোতলে নেশা জাতীয় দ্রব্য মেশানো পানীয় জোরপূর্বক পান করান। এরপর অটোচালক ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়লে তাকে পেছনের সিটে বসিয়ে অজ্ঞাত যুবকটি অটো চালানো শুরু করে লালবাগ এলাকার দিকে যায় এবং কৃষি গবেষণা এলাকার সামনের নির্জন রাস্তায় তাকে আঘাত করে ফেলে দিয়ে অটোরিকশাটি নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে রাত সাড়ে ১১টার দিকে ওই এলাকা থেকে মাইদুল ইসলামকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করায় পুলিশ।

এরপর জ্ঞান ফিরলে তার দেয়া তথ্য মতে ছিনতাই হওয়া মোবাইল ফোন নম্বরের সূত্র ধরে কাউনিয়া পুলিশের সহায়তায় রাত দেড়টার দিকে কাউনিয়া মহাসড়কের রেলগেট এলাকা থেকে রুমি বেগমকে আটকসহ ছিনতাই হওয়া অটোরিকশাটি উদ্ধার করে পুলিশ।

এ সময় ছিনতাইকারী চক্রের বাকি সদস্যরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়। পরে চালক মাইদুল ইসলামের ভাই তাজহাট থানায় মামলা দায়ের করেন।

তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রোকোনুজ্জামান বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রুমি দীর্ঘদিন যাবত কৌশলে অটোরিকশা ছিনতাই করার কথা স্বীকার করছে।

জিতু কবীর/এমএমজেড

আপনার মতামত লিখুন :