গ্রাহকের কোটি টাকার স্বর্ণালংকার নিয়ে ব্যবসায়ী উধাও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০৯:১৫ এএম, ১৪ মে ২০১৯

মাদারীপুরের কালকিনিতে কয়েকশ গ্রাহকের প্রায় কোটি টাকার স্বর্ণালংকার নিয়ে বরুন চন্দ্র পাল নামে এক প্রতারক জুয়েলার্স ব্যবসায়ী হঠাৎ করে উধাও হয়ে গেছেন। এ ঘটনায় ওই দোকানের প্রায় ৪ শতাধিক গ্রাহক সোমবার দোকানের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। খবর পেয়ে দোকানটি সিলগালা করে দিয়েছে প্রশাসন।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পৌর এলাকার মজিদ বাড়ি (ভুরঘাটা) বাজারের স্বর্ণ ব্যবসায়ী বরুন চন্দ্র পাল গ্রামীণ জুয়েলার্স নামে একটি দোকান খুলে প্রায় ৩০ বছর ধরে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। তার ওই দোকানে বিভিন্ন এলাকার গ্রাহকরা তাকে বিশ্বাস করে নগদ অর্থ জমা রাখতেন এবং কানের দুল, আংটি ও চেইনসহ বিভিন্ন রকম জিনিসপত্র তৈরি করার জন্য স্বর্ণ জমা রেখেছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করে বরুণ চন্দ্র পাল প্রতারনার আশ্রয় নিয়ে সোমবার ভোর রাতে সমস্ত নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে দোকান তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যান।

সকালে বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে গ্রামীণ জুয়েলার্সের মালিক বরুণ চন্দ্র পালকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে দোকানের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন গ্রাহকরা। এ খবর পেয়ে কালকিনি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং তিনি ওই দোকান খুলে দেখেন কোনো জিনিসপত্র নেই। এরপর তিনি দোকানটি সিলগালা করে দেন।

madaripure

ভুক্তভোগী মনিরা আক্তার, রোজি আক্তার, রায়হান হাওলাদার, ফারজানা বেগম, অপু সরকার ও শিরাজ সরদার কান্নাজড়িত কণ্ঠে অভিযোগ করে বলেন, গ্রামীণ জুয়েলার্সের মালিক বরুণ চন্দ্র আমাদের সকল স্বর্ণ ও নগদ টাকা-পয়সা নিয়ে পালিয়ে গেছে। আমরা এখন পথে বসে গেছি। আমরা তাকে গ্রেফতারের দাবি জানাই প্রশাসনের কাছে।

কালকিনি থানা পুলিশের এসআই বাবুল বসু বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দোকান খুলে দেখি কোনো জিনিসপত্র নেই। বরুণ সমস্ত মালামাল নিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, দোকানের সকল গ্রাহকের স্বর্ণ ও নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে গেছেন মালিক বরুণ পাল। আমরা দোকানটি সিলগালা করে দিয়েছি।

এ কে এম নাসিরুল হক/আরএআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :