মহাসড়কে মায়ের আহাজারি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝিনাইদহ
প্রকাশিত: ০৫:৫৪ পিএম, ২২ মে ২০১৯

সন্তানকে প্রকাশ্যে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় খুনিদের গ্রেফতার ও ফাঁসি চেয়ে এক মা মহাসড়কে নেমে আহাজারি করেছেন। নিহত রতন আলীর মা সুনাভানুর সঙ্গে রতনের স্ত্রী-সন্তান ও স্বজনরা যোগ দিলে আহাজারিতে ভারী হয়ে ওঠে মহাসড়কের দু’পাশ। এসময় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী তাদের সঙ্গে যোগ দিয়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। বসন্তপুর গ্রাম ছাড়াও আশপাশ থেকে কয়েকশ নারী-পুরুষ এতে অংশ নেয়।

তারা রতনের খুনিদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবি জানাতে থাকে। খুলনা-কুষ্টিয়া মহাসড়কের ঝিনাইদহের শৈলকুপার শেখপাড়ায় সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

Shailkupa-Humanchain

প্রসঙ্গত, গত ১৭ এপ্রিল ভোরে শৈলকুপা উপজেলার পূর্ব বসন্তপুর গ্রামে ঝড়ে গাছের ডাল ভেঙে পড়াকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষরা কুপিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে ঘটনাস্থলে হত্যা করে রায়হান আলী মন্ডলের ছেলে রতন আলী মন্ডলকে (৩৫)।

Shailkupa-Humanchain

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় রতন আলী মন্ডলের বাবা রায়হান আলী মন্ডল শৈলকুপা থানায় বাদী হয়ে বসন্তপুর গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনসহ ২৭ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে ১ মাস পার হলেও মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামি থেকে ৪ নম্বর আসামি এখনও গ্রেফতার হয়নি। উল্টো মামলা তুলে নিতে খুনিরা বাদীর পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে।

Shailkupa-Humanchain

অন্যদিকে মামলাটির প্রধান আসামিদের বাড়ি-ঘরে ২৪ ঘণ্টা পুলিশ প্রহরা রাখা হয়েছে। বাদীপক্ষের অভিযোগ প্রধান আসামিদের না ধরে পুলিশি নিরাপত্তায় রাখা হয়েছে, ফলে মামলার ভবিষ্যত ও বিচার নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন নিহতের বাবা রায়হান আলী মন্ডল।

তবে পুলিশের দাবি রতন হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ২৭ এজাহারভুক্ত আসামির কয়েকজনকে তারা গ্রেফতার করেছে এবং অধিকাংশ আসামিকে কোর্টে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য করা হয়েছে।

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ/এমএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :