ঈদে পশ্চিমাঞ্চলে চলবে ৩ জোড়া বিশেষ ট্রেন

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৮:৩৪ পিএম, ২৪ মে ২০১৯
ফাইল ছবি

ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে ঈদুল ফিতরে তিন জোড়া বিশেষ ট্রেন যুক্ত হচ্ছে পশ্চিমাঞ্চল রেলে। তবে রাজশাহী থেকে চলবে না এর একটিও ট্রেন। কেবল অতিরিক্ত কোচ যুক্ত হচ্ছে রাজশাহী-ঢাকা রুটে চলাচলকারী আন্তঃনগর ও বিরতিহীন ট্রেনে।

বিশেষ ট্রেনগুলো চলবে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের ঈশ্বরদী-ঢাকা, খুলনা-ঢাকা ও লালমনিরহাট-ঢাকা রুটে। আপ-ডাউন মিলে চলাচল করবে এক জোড়া ট্রেন।

এসব ট্রেনের চলাচল শুরু হবে ২ জুন থেকে। ট্রেন চলবে ঈদের ছুটির পরবর্তী সাতদিন। ১০ দিন আগে ট্রেনগুলোর টিকিট পাওয়া যাবে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান বাণিজ্যিক ব্যবস্থাপকের (সিসিএম) দফতর জানিয়েছে, ৩ জুন দিনগত রাত ১২টা ২০ মিনিটে ঢাকা ছাড়বে খুলনা-ঢাকা রুটের ঈদ স্পেশাল ট্রেনটি। ট্রেনটি খুলনা পৌঁছাবে সকাল ৮টা ৩৫ মিনিটে।

খুলনা থেকে দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছাবে রাত ১১টা ১০ মিনিটে। এরপর বন্ধ। ঈদের আগে এই রুটের স্পেশাল ট্রেন সার্ভিস এক দিনেরই। তবে ছুটির পর পরবর্তী সাতদিন নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ী এ রুটে স্পেশাল ট্রেন চলবে।

ঈশ্বরদী-ঢাকা রুটের ঈদ স্পেশাল ট্রেন চলাচল করবে ২ থেকে ৪ জুন পর্যন্ত। ট্রেনটি ঢাকা থেকে সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে ছেড়ে ঈশ্বরদী পৌঁছাবে রাত ১১টা ১০ মিনিটে। ঈশ্বরদী থেকে ভোর ৪টা ৩০ মিনিটে ছেড়ে ঢাকায় পৌঁছাবে সকাল ৯টা ৩০ মিনিটে।

লালমনিরহাট-ঢাকা রুটের ঈদ স্পেশাল ট্রেন চলবে ২, ৩ ও ৪ জুন এই তিনদিন। ট্রেনটি লালমনিরহাট থেকে ছাড়বে রাত ৯টা ৩০ মিনিটে। এটি ঢাকা পৌঁছাবে পরদিন সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে। ঢাকা থেকে ছাড়বে সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে। লালমনিরহাট পৌঁছাবে সন্ধ্যা ৭টায়। তবে এই ট্রেনটি ৪ জুন ঢাকা থেকে লালমনিরহাট যাবে। কিন্তু ওইদিন আর লালমনিরহাট থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসবে না।

সূত্রমতে, ঈদে রাজশাহী-ঢাকা রুটে নিয়মিত চলাচলকারী আন্তঃনগর সিল্কসিটি, পদ্মা ও ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেন তিনটিতে যুক্ত করে একটি করে অতিরিক্ত শোভন কোচ। এসব কোচ যুক্ত হবে ৩১ মে থেকে।

আর অতিরিক্ত একটি শোভন চেয়ার কোচ ও একটি স্নিগ্ধা (এসি) কোচ সংযুক্ত করা হবে এই রুটের একমাত্র বিরতিহীন বনলতা এক্সপ্রেসে। গত ২৭ এপ্রিল থেকে বাণিজ্যিকভাবে চলাচল শুরু করেছেন বনলতা এক্সপ্রেস। এই ট্রেনের কারণে এই রুটে এবার ঈদে নেই বিশেষ ট্রেন।

এদিকে, ঈদ উপলক্ষে পশ্চিমাঞ্চল রেলে ফিরতি টিকেট বিক্রি শুরু হবে ২৯ মে। টিকিট বিক্রি চলবে ২ জুন পর্যন্ত। এর মধ্যে ২৯ মে ৭ জুনের, ৩০ মে ৮ জুনের, ৩১ মে ৯ জুনের, ১ জুন ১০ জুনের ও ২ জুন ১১ জুনের আগাম ফিরতি টিকিট বিক্রি হবে।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান বাণিজ্যিক ব্যবস্থাপক (সিসিএম) এএমএম শাহ নেওয়াজ এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, নির্ধারিত সিডিউল মেনে ঈদের আগে চলাচল করবে ট্রেনগুলো। একই সিডিউলে এসব ট্রেন চলবে ঈদের ছুটির পরবর্তী সাতদিন।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) খোন্দকার শহিদুল ইসলাম জানান, ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভোগান্তি কমাতে এবার তিন জোড়া ‘ঈদ স্পেশাল’ ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। নিরাপদ ভ্রমণের সব ব্যবস্থাই থাকছে এসব ট্রেনে। তাছাড়া সিডিউল বিপর্যয় ও টিকিট কালোবাজারি রোধে সব রকম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

জেএইচ/পিআর