ইসলামের শিকল বন্দি ঈদ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৩:৪২ পিএম, ০৫ জুন ২০১৯

মাঝে মাঝে স্বাভাবিক আবার কখনও কখনও অস্বাভিক আচরণ করেন ইসলাম সরদার। কোনো উপায় না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে তাকে। সাতক্ষীরার তালা সদরের খানপুর এলাকার টকো সরদারের ছেলে ইসলাম সরদার (২০)।

ঈদের দিন বুুধবার দুপুরে তালা সদরের মাঝিয়াড়া বাজারে একটি দোকানের পাশে খুঁটির সঙ্গে শিকলবন্দি অবস্থায় দেখা যায় ছেলেটিকে। শিকলের ভারে পায়ের বিভিন্নস্থানে ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। তবুও নিরুপায় হয়ে অসহায় পরিবারটি তাকে শিকলমুক্ত করেনি ঈদের দিনও।

eidd1

খানপুর গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দা বিল্লাল সরদার জাগো নিউজকে জানান, ছোটবেলায় স্বাভাবিক ছিল ইসলাম সরদার। তবে কয়েক বছর আগে থেকে তার মস্তিষ্ক বিকৃত হয়ে যায়। মাঝে মধ্যে স্বাভাবিক মানুষের মত আচরণ করে। আবার কখনও কখনেও হয়ে ওঠে অস্বাভিক। এক প্রকার বাধ্য হয়েই পরিবারের সদস্যরা তার পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে।

তিনি আরও জানান, অনেকের ধারণা বিভিন্ন ধরনের নেশায় আসক্ত হয়ে মস্তিষ্ক বিকৃত হয়ে গেছে। পরিবারটি অসহায় হওয়ায় কখনও কোনো ডাক্তার দেখাতে পারেননি তাকে।

eidd1

ইসলাম সরদারের শারীরিক অবস্থার বিবরণ শুনে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক আরিফুজ্জামান আরিফ জাগো নিউজকে বলেন, চিকিৎসার ভাষায় রোগটিকে সাধারণত সিজোসেনিয়া বলে। মনোরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দেখালে তাকে সম্পূর্ণরুপে সুস্থ করা সম্ভব। এছাড়া সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হলেও এখানে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা যেতে পারে।

আকরামুল ইসলাম/এমএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :