প্রেমিকের কাছে ধর্ষণের শিকার মাদরাসা শিক্ষিকা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ১২:০৫ পিএম, ১৩ জুন ২০১৯

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে আহমেদ মিশন (২৬) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মাদরাসা শিক্ষিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। মিশন মুছাপুর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ফয়েজ উল্যাহর নতুন বাড়ির মো. এরফানের ছেলে।

এ ঘটনায় ওই শিক্ষিকা বাদী হয়ে বুধবার (১২ জুন) রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।

মামলার এজহারে বলা হয়েছে, ধর্ষণের শিকার ওই শিক্ষিকা মুছাপুর ইউপির ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। চার বছর আগে আহমেদ মিশনের (২৬) সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘ এ সময়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয় মিশন। কিন্তু রাজি না হওয়ায় সে অশোভন আচরণ করে। পরে ওই শিক্ষিকা তার সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দিলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। গত ১১ জুন প্রচণ্ড গরমে দরজা খোলা রেখে ওই শিক্ষিকা বাসায় বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। এমন সময় বাসায় ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে মিশন। এমনকি বিষয়টি নিয়ে মামলা মোকদ্দমা অথবা বিচার প্রার্থী হলে তাকে হত্যার হুমকি দেয় মিশন।

কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি মো. আসাদুজ্জামান মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান চলছে।

মিজানুর রহমান/এফএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :