বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে যাওয়াই কাল হলো রাফিদের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ১১:২৪ এএম, ১৩ জুন ২০১৯

চাঁদপুরে ‘মিনি কক্সবাজার’ হিসেবে পরিচিতি পাওয়া পদ্মা নদীর চরে গোসলে নেমে নিখোঁজ হওয়া কলেজছাত্র রাফিদুল ইসলামের মরদেহ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চাঁদপুরের মেঘনার ডাউন থেকে নৌপুলিশ রাফিদুলের মরদেহ উদ্ধার করে।

চাঁদপুর থেকে মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কলেজের অধ্যক্ষ ড. এমদাদুল হক। তিনি আরও জানান, নৌ-পুলিশ বুধবার দিনভর ও বৃহস্পতিবার ভোর থেকে উদ্ধার অভিযান চালায়। আইনগত কিছু প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ কুমিল্লায় আনা হবে।

এর আগে বুধবার (১২ জুন) দুপুর ১২টার দিকে নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয় রাফিদুল ইসলাম রাফিদ। রাফিদ কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ড সরকারি মডেল কলেজের বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ও কুমিল্লা বন বিভাগের কর্মকর্তা রফিকুল ইসলামের ছেলে।

রাফিদুলের সহপাঠী সাখাওয়াত, হাবীব, জিসান, সুদিপ্ত, মিঠু এবং রাজীব জানায়, তারা আট বন্ধু বুধবার সকাল ৮টার দিকে চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা দেয়। চাঁদপুরের বড়স্টেশন এসে একটি ট্রলারে করে দুপুর ১২টার দিকে মিনি কক্সবাজার খ্যাত পদ্মা নদীর মাঝখানে জেগে ওঠা চরে ঘুরতে যায় তারা। সেখানে তারা সাঁতার কাটছিল। হঠাৎ ঢেউয়ের তোড়ে স্রোতের টানে নিখোঁজ হয় রাফিদ। তবে তারা অন্য সাতজন তীরে আসতে পারে।

চাঁদপুর নৌ-পুলিশের এসআই হালিম বলেন, কলেজছাত্র নিখোঁজের খবর পেয়ে উদ্ধার অভিযান চালালেও গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত সন্ধান না পেয়ে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে আবারও তল্লাশি শুরু করি। পরে মেঘনার ডাউন থেকে ভাসমান অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করি।

কামাল উদ্দিন/এফএ/জেআইএম