বিয়ের আয়োজন নিয়ে ব্যস্ত মা, গলায় ফাঁস দিলো মেয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বরিশাল
প্রকাশিত: ০৭:২০ পিএম, ১৩ জুন ২০১৯

প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় এবং অন্যত্র বিয়ে ঠিক হওয়ায় মা-বাবার সঙ্গে অভিমান করে খাদিজা আক্তার (১৮) নামের এক কলেজছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

বরিশালে বাবুগঞ্জ উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নের ভুতেরদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার সকালে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

আগামীকাল শুক্রবার খাদিজার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। খাদিজা ভুতেরদিয়া গ্রামের মিজান বেপারীর মেয়ে এবং বাবুগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিলেন।

প্রতিবেশীরা জানান, খাদিজা আক্তারের সঙ্গে একই গ্রামের মো. মিলন নামের এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এ সম্পর্ক মেনে না নিয়ে খাদিজার অমতে অন্যত্র বিয়ে ঠিক করেন বাবা-মা। শুক্রবার বিয়ের দিন ঠিক করা হয়। সকালে খাদিজার মা সাহিদা বেগম মেয়ের বিয়ের ব্যস্ততায় অন্য বাড়িতে যান। এ সুযোগে সকাল ৯টার দিকে ঘরের দরজা বন্ধ করে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেন খাদিজা।

বাবুগঞ্জ থানা পুলিশের পরিদর্শক আবদুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

সাইফ আমীন/এএম/এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :