৫ দিন পর নিখোঁজ মুক্তিযোদ্ধার মরদেহ উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৩:০৫ পিএম, ১৩ জুলাই ২০১৯

টাঙ্গাইল জেলা অ্যাডভোকেট বার সমিতির সিনিয়র আইনজীবী, মুক্তিযোদ্ধা ও কৃষক শ্রমিক জনতালীগের কেন্দ্রীয় নেতা মিঞা মো. হাসান আলী রেজার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ৫ দিন নিখোঁজের পর শনিবার দুপুর ১২টার দিকে সদর উপজেলার লৌহজং নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

টাঙ্গাইল মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সায়েদুর রহমান জানান, দুপুরের দিকে পৌর শহরের কাগমারার পশ্চিম আকুর টাকুর পাড়া এলাকার লৌহজং নদীতে ভাসমান মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। পরে পরিবারের সদস্যরা মরদেহটি নিখোঁজ আইনজীবী মিঞা মো. হাসান আলীর বলে শনাক্ত করেন।

তিনি আরও জানান, হাসান আলীকে হত্যার পর তার মরদেহটি নদীতে ফেলা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে গত ৮ জুলাই (সোমবার) সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় নিজ বাসা থেকে বের হওয়ার পর আর ফিরে আসেননি আইনজীবী মিঞা মো. হাসান আলী। পরিবারের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে তার সন্ধান চেয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় জিডি করে পরিবার।

নিহত আইনজীবী বীর মুক্তিযোদ্ধা মিঞা মো. হাসান আলী রেজা কৃষক শ্রমিক জনতালীগের প্রতিষ্ঠাতাকালীন কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য ও জেলা শাখার সহ-সভাপতি।

দলীয় প্রবীণ নেতার মরদেহ উদ্ধার প্রসঙ্গে কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা বীরপ্রতীক ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমরা প্রশাসনের কাছে তাকে জীবিত উদ্ধারের দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু পুলিশ উদ্ধার করলো তার মরদেহ। প্রশাসন যদি গুরুত্ব সহকারে উদ্ধার তৎপরতা চালাতো তাহলে অবশ্যয় দলীয় নেতা ও প্রবীণ আইনজীবী মিঞা মো. হাসান আলী রেজাকে জীবিত করা সম্ভব হতো।

আরিফ উর রহমান টগর/এফএ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :