পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ানো খোকন গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ০৪:১৯ পিএম, ১৪ জুলাই ২০১৯

পদ্মা সেতুতে লক্ষাধিক মানুষের মাথার প্রয়োজন ফেসবুকে এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে কুমিল্লার তিতাস উপজেলা এলাকা থেকে খোকন মিয়া (৩৫) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ সময় তার ব্যবহৃত মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত খোকন মিয়া তিতাস উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের মৃত হাফিজ উদ্দিনের ছেলে। তিনি বিভিন্ন সময়ে এ ধরনের গুজব তৈরি করে ফেসবুকে প্রচার করে জনমনে বিভ্রান্তিসহ আতঙ্ক সৃষ্টি করেছিলেন।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে কুমিল্লা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন।

Comilla

পুলিশ সুপার বলেন, সম্প্রতি পদ্মা সেতু তৈরিতে লক্ষাধিক মানুষের মাথা লাগবে এমন একটি গুজব ফেসবুকে প্রচারের মাধ্যমে জনগণের মাঝে আতঙ্ক সৃষ্টিসহ সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে একটি কুচক্রী মহল। এ ধরনের তথ্য নজরে আসার পর জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট মনিটরিং শুরু করে। এরই মধ্যে গুজব ছড়ানো খোকন মিয়া নামের একটি ফেসবুক আইডি শনাক্ত করা হয়। খোকন তার ফেসবুক আইডিতে গত ৬ জুলাই ‘মাথা কাটা থেকে সাবধান-হুঁশিয়ার’ এবং ১০ জুলাই একটি বিশেষ সংবাদ ‘প্রধানমন্ত্রীর অনুমতিতে পদ্মা সেতু নির্মাণের লক্ষ্যে মানুষের মাথা খুব প্রয়োজন এবং মানুষের মাথা কেটে নেয়া হচ্ছে’ এমন গুজব প্রচার করে। বিষয়টি তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে নিশ্চিত হওয়ার পর পুলিশের সাইবার ক্রাইম টিম শনিবার রাতে তিতাস উপজেলায় অভিযান চালিয়ে খোকন মিয়াকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গুজব ছড়ানোর কথা স্বীকার করেছেন খোকন। তার মোবাইলটি জব্দ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মো. কামাল উদ্দিন/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :