পাটগ্রামে টর্নেডো, ৫ শতাধিক ঘর-বাড়ি বিধ্বস্ত, নারীর মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লালমনিরহাট
প্রকাশিত: ১০:০৮ পিএম, ১৪ জুলাই ২০১৯

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার ৪ ইউনিয়নে টর্নেডোর আঘাতে ৫ শতাধিক কাঁচা-পাকা ঘর-বাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এ সময় ঘরের উপর গাছ ভেঙে পড়ে আলেজা বেগম (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

নিহত আলেজা বেগম উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের শৌলমারী গ্রামের ইব্রাহিম হোসেন স্ত্রী। এর আগে শনিবার ভোর রাতে টর্নেডোর আঘাতে পাটগ্রাম উপজেলার চার ইউনিয়নে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

Lalmonirhat-(1).jpg

রোববার বিকেলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর ঘর-বাড়ি পরিদর্শন করেছেন পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল করিম।

স্থানীয়রা জানান, পাটগ্রাম উপজেলার দহগ্রাম, পাটগ্রাম, বুড়িমারী ও শ্রীরামপুর ইউনিয়নের থেকে প্রথমে টর্নেডো আঘাত হানে। এতে অনেক বাড়ি-ঘরসহ গাছপালা উপড়ে যায়। ঝড়ে আহত হয়েছেন শতাধিক মানুষ। তারা বর্তমানে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন।

Lalmonirhat-(1).jpg

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরির্দশন করে পাটগ্রাম উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আব্দুল করিম বলেন, শনিবার রাতে ভারতীয় সীমান্ত দিয়ে আসা টর্নেডোটি দহগ্রাম, পাটগ্রাম, বুড়িমারী ও শ্রীরামপুর ইউনিয়নে আঘাত হানার পর আবারও ভারতের দিকে চলে যায়। এ সময় শ্রীরামপুরে একটি ঘরের ওপর গাছ ভেঙে পড়লে আলেজা বেগম নামে এক নারী নিহত ও তার দুই নাতিসহ শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে।

Lalmonirhat-(1).jpg

লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক দায়িত্বে থাকা এডিসি (রাজস্ব) আহসান হাবীব বলেন, পাটগ্রামে টর্নেডোর আঘাতে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে, তা নির্ণয়ের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

রবিউল হাসান/এমএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :