ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় পুলিশ কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফরিদপুর
প্রকাশিত: ০৯:৪৮ পিএম, ২৬ জুলাই ২০১৯
ফাইল ছবি

ফরিদপুরে এক ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়েছেন পুলিশের শিক্ষানবিশ উপ-পরিদর্শক (পিএসআই) আল ইমরান। বৃহস্পতিবার রাতে শহরের ঝিলটুলী এলাকার ব্যাংক কর্মকর্তার নিজ ফ্ল্যাট থেকে আপত্তিকর অবস্থায় ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীসহ পুলিশের ওই পিএসআইকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও কোতয়ালি থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ফরিদপুর শহরের একটি বেসরকারি ব্যাংকের জনৈক কর্মকর্তার স্ত্রীর (এক সন্তানের জননী) সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ময়না গ্রামের কাঞ্চন মুন্সীর ছেলে পুলিশের পিএসআই (বর্তমানে রাজবাড়ী থানায় কর্মরত) আল ইমরানের। পরিচয়ের সূত্র ধরে তাদের মধ্যে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাঝে মধ্যেই তারা বিভিন্ন স্থানে দেখা-সাক্ষাৎ করতো। ব্যাংক কর্মকর্তা ফরিদপুরে না থাকার সুযোগে তার স্ত্রী বৃহস্পতিবার রাতে ঝিলটুলী এলাকার রেইনবো স্কুলের পাশে তার নিজস্ব ফ্ল্যাটে আল ইমরানকে ডেকে আনেন। বিষয়টি ব্যাংক কর্মকর্তা জানতে পেরে কৌশলে সেখানে গিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় ফ্ল্যাট থেকে আপত্তিকর অবস্থায় দুইজনকে আটক করেন। পরে কোতয়ালি থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পুলিশ সেখান থেকে দুইজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্যাংক কর্মকর্তার বাড়ি কুষ্টিয়া জেলায়। তিনি বেশ কয়েক বছর আগে একই জেলার হাউজিং মহল্লার মাহমুদা রহমান বৃষ্টি নামে ওই নারীকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে ৭ বছরের এক পুত্র সন্তান রয়েছে।

ওই ব্যাংক কর্মকর্তা জানান, দীর্ঘদিন ধরে তার স্ত্রী পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে পড়ে। নানাভাবে বুঝিয়েও তাকে এ পথ থেকে ফেরানো যায়নি। এ ঘটনায় নিজে বাদী হয়ে থানায় মামলা করবেন বলে তিনি জানান।

ফরিদপুর কোতয়ালি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এফ এম নাসিম জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশের পিএসআইসহ ব্যাংক কর্মকর্তার স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। পরকীয়ার বিষয়টি আটক দুইজনই প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছেন। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মামলা হলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বি কে সিকদার সজল/আরএআর/পিআর