স্ত্রীর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে শিক্ষক লাঞ্ছিত, মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০৪:৩৭ পিএম, ১৭ আগস্ট ২০১৯

বখাটেদের হাত থেকে স্ত্রীর সম্মান বাঁচাতে গিয়ে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষক রাশিদুল ইসলাম লাঞ্ছিত হবার ঘটনায় মামলা হয়েছে। 

শুক্রবার রাতে তার স্ত্রী তাবাসসুম ফারজানা বাদী হয়ে ঘটনার ৬ দিন পর নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় মামলা করেন।

মামলায় অজ্ঞাতনামা আটজনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের সবার বয়স ২০ বছরের মধ্যে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

রাশিদুল ইসলাম রুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের শিক্ষক। গত ১০ আগস্ট রাজশাহী শহরের ব্যস্ততম সাহেববাজার মনি চত্বরে একদল বখাটে তার স্ত্রীকে যৌন হয়রানি করে। এ সময় ওই শিক্ষক প্রতিবাদ করায় তাকে লাঞ্ছিত করে বখাটেরা। প্রকাশ্যে এ ঘটনা ঘটলেও তাকে রক্ষায় এগিয়ে আসেনি কেউ। এ নিয়ে দেশত্যাগের কথা জানিয়ে ফেসবুকে আবেগঘন স্ট্যাটাস দেন রাশিদুল ইসলাম।

বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন জানান, গত ১০ আগস্ট রাতে নগরীর মনিচত্বর এলাকায় বখাটেদের হামলার শিকার হন রুয়েট শিক্ষক রাশিদুল ইসলাম। তিনি ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণ পদক’ প্রাপ্ত একজন শিক্ষক।

নিবারণ চন্দ্র বর্মণ আরও জানান, বিষয়টি জানতে পেরে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। আশপাশে থাকা ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরার ফুটেজ দেখেছেন। কিন্তু কিছু বুঝতে পারেননি। 

এ ঘটনার কোনো প্রত্যক্ষদর্শীও পাওয়া যাচ্ছে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুলিশ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। আশা করি এ ঘটনায় জড়িতদের দ্রুতই শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

এদিকে, মামলা দায়েরে বিলম্বের কারণ জানতে শিক্ষক রাশিদুল ইসলামকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। 

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এমএমজেড/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]