হজে গিয়ে নিখোঁজ সুনামগঞ্জের সুরুতুন নেছা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ১২:০৪ এএম, ১৯ আগস্ট ২০১৯

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলার সুরুতুন নেছা আফেন্দী (৬৫) হজে গিয়ে ৮ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। গত ২৮ জুলাই স্বামী মো. রজব আলীর সঙ্গে হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে থেকে একটি ফ্লাইটে সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন তিনি।

হজের আনুষ্ঠানিকতা পালনের জন্য ১১ আগস্ট তারা দুজন শয়তানকে পাথর নিক্ষেপের উদ্দেশ্যে মিনায় যান। ওই সময় সেখানে প্রচুর ভিড় থাকায় সুরুতুন নেছার স্বামী তাকে অন্য নারীদের সঙ্গে তাবুতে থাকতে বলেন। পরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে এসে রজব আলী দেখেন সুরুতুন নেছা তাবুতে নেই।

এদিকে মায়ের খোঁজ না পেয়ে ভেঙে পড়েছেন তাদের ছেলেমেয়ে। স্বজনদের সহযোগিতায় বিভিন্নভাবে মাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সুরুতুন নেছার ছেলে ইয়াকবির আফেন্দি। রজব আলী ও সুরুতুন নেছা প্রথমে সিলেটের শাহাপরান ট্রাভেলন্স এজেন্সি হয়ে পরে ঢাকার মাউরা ট্রাভেলস এজেন্সির মাধ্যমে হজে যান বলে জানায় তাদের পরিবার।

এ ঘটনায় সিলেটের শাহাপরান ট্রাভেল এজেন্সির মালিক মো. জুবায়েরকে একাধিকবার ফোন দেয়া হলে তিনি কল রিসিভ করেননি।

নিখোঁজ সুরুতুর নেছার ছেলে ইয়াকবির আফেন্দী বলেন, আমার মা-বাবা এ বছর একসঙ্গে হজ পালনের উদ্দেশ্য সৌদি আরবে গেছেন। সেখানে শয়তানের উদ্দেশ্য পাথর নিক্ষেপের সময় খুব বেশি ভিড় থাকায় পাশের তাবুতে অন্য নারীদের সঙ্গে তাকে রেখে যান বাবা। পরে এসে দেখেন সেখানে কেউ নেই। অনেক খোঁজাখুজির পরও এখন পর্যন্ত তাকে পাওয়া যায়নি।

তিনি সবার কাছে বিশেষ অনুরোধ জানিয়ে বলেন, সৌদি আরবে যদি কেউ তার মায়ের সন্ধান পান, তাহলে ০১৭১২-৪০৩৪৮২ নম্বরে যোগাযোগ করবেন। এছাড়া মোয়াল্লেমের ৯৬৬৫৫৩৬৪৪৬৯৬ নম্বরে যোগাযোগের অনুরোধ জানিয়েছেন ইয়াকবির আফেন্দী।

মোসাইদ রাহাত/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]