স্ত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় স্বামীর গায়ে অ্যাসিড নিক্ষেপ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী 
প্রকাশিত: ০১:৫১ পিএম, ২৬ আগস্ট ২০১৯

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে স্ত্রীকে ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় স্বামী নাছির উদ্দিনের শরীরে অ্যাসিড নিক্ষেপের অভিযোগ উঠেছে। রোববার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার চর বাগ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

আহত নাছির উদ্দিন ওই গ্রামের নেজাম উদ্দিনের ছেলে। তিনি বর্তমানে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। অ্যাসিডে তার বুক, হাত ও উরুসহ শরীরের ৯ শতাংশ ঝলসে গেছে বলে জানান চিকিৎসক।

নাছিরের মা জানান, রোববার দুপুরে জেলা শহর মাইজদীর নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে নির্যাতনের বিরুদ্ধে অন্যান্যদের সঙ্গে নাছিরও মানববন্ধনে অংশ নেয়। সেখান থেকে বিকেলে বাড়ি গেলে ধর্ষণ মামলার আসামি ও তার লোকজন নাছিরসহ পরিবারের সদস্যদের নানাভাবে হুমকি দেয়। একপর্যায়ে রাতে নাছির প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে উঠলে তাকে অ্যাসিড মেরে ৬-৭ জন দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ সময় নাছির ৩-৪ জনকে চিনতে পারে। পরে নাছিরকে উদ্ধার করে রাতেই নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. খলিল উল্যাহ্ জানান, নাছিরের শরীরের প্রায় ৯ শতাংশ ঝলসে। তবে তিনি শঙ্কামুক্ত। 

এ বিষয়ে চরজব্বার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ উদ্দিন জানান, ভুক্তভোগীদের পক্ষ থেকে থানায় কোনো অভিযোগ দেয়া হয়নি। তারপরও খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং হাসপাতালে ভিকটিমের সঙ্গে কথা বলেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি। 

উল্লেখ্য, গত ২৩ মে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চর বাগ্গা গ্রামে গোপনে গোসলের ভিডিও ধারণ করে ফেসবুকে ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে তার স্ত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ করেন নাছির। এ ঘটনায় অভিযুক্ত জয়নাল নামে একজনকে আসামি করে আদালতে মামলা করেন নাছির। মামলার পরে বাদীর পরিবারের বিরুদ্ধে উল্টো টাকা আত্মসাতের মিথ্যা মামলা ও সাক্ষীদের এলাকা থেকে বিতাড়িত করার হুমকি দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ নাছিরের পরিবারের। শুধু বাদী ও তার পরিবারকে নয়, মামলায় সাক্ষী হওয়ায় হুমকির সম্মুখীন হচ্ছেন সাক্ষীরাও।

মিজানুর রহমান/আরএআর/পিআর