দীর্ঘদিন ধরে কুমিল্লার মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছিলেন তারা

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৮:৪৮ পিএম, ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কুমিল্লার তিতাসের জিয়ারকান্দি ও দাউদকান্দির গৌরীপুর এলাকা থেকে তিন ভুয়া এমবিবিএস ডাক্তারকে গ্রেফতার করেছেন র‌্যাব-১১ এর সদস্যরা।

গত শনিবার রাতে পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তারা হলেন- ইশরাত জাহান (৩০), মো. আবু সাঈদ (৩৮) ও মহাসিন মিয়া (৩৯)।

এ বিষয়ে গতকাল রোববার বিকেলে র‌্যাব-১১ এর উপ-পরিচালক (মিডিয়া অফিসার) মেজর তালুকদার নাজমুছ সাকিবের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব জানায়, গ্রেফতারদের জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, তাদের বাড়ি কুমিল্লার বিভিন্ন এলাকায়। তারা দীর্ঘদিন ধরে নিজেদের বিশেষজ্ঞ এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে অনুমোদনবিহীন মোহন জেনারেল হাসপাতাল, পূর্ণ কেয়ার সেন্টার ও পদ্মা ডায়াগনস্টিক সেন্টার' নামে প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়মিত রোগী দেখেন এবং রোগীদের বিভিন্ন ডাক্তারি পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্ট তৈরি করে আসছেন।

গ্রেফতার ভুয়া ডাক্তার ইশরাত জাহান তার নামের পাশে ডাক্তারি ডিগ্রি হিসেবে ডা. ইশরাত জাহান, এমবিবিএস, সিএমইউ অ্যান্ড ডিএমইউ (ঢাকা), পিজিটি (গাইনি অ্যান্ড স্বাস্থ্য) ও ভুয়া ডাক্তার মো. আবু সাঈদ তার নামের পাশে এমবিবিএস, সিএমইউ আল্ট্রা (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), ডিএমইউ, সিপিআর (বারডেম হাসপাতাল), সিটিএম (নাক, কান, গলা, মেডিসিন), মেডিসিন, মা ও শিশু (সনোলজিস্ট) এবং ভুয়া ডাক্তার মহসিন মিয়া তার নামের পাশে ডিএমসি, সিএইচডব্লিউ, বিএইচই, স্বাস্থ্য, সিএ ইউ আল্ট্রা, মা ও শিশু গাইনি, চর্ম ও যৌন, নাক, কান, গলা অভিজ্ঞ এক্স পিটিইন জেনারেল হাসপাতাল কুমিল্লা নামে প্রেসক্রিপশনে উল্লেখ করেন।

র‌্যাবের অভিযানিক দল নিবন্ধনকৃত চিকিৎসক হিসেবে তাদের এমবিবিএস ডাক্তারি সনদ ও বিএমডিসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেখতে চাইলে তারা কোনো এমবিবিএস ডাক্তারি সনদ ও বিএমডিসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেখাতে পারেনি। জিজ্ঞাসাবাদে তারা আরও জানায় যে, তারা দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে বিএমডিসির নিবন্ধনকৃত এমবিবিএস ডাক্তার ও বিভিন্ন রোগের অভিজ্ঞ চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিয়ে অনুমোদনবিহীন প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়মিত রোগী দেখাসহ তাদের প্রেসক্রিপশন দিয়ে আসছেন।

র‌্যাব-১১ এর উপ-পরিচালক তালুকদার নাজমুছ সাকিব জানান, গ্রেফতার আসামিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

হোসেন চিশতী সিপলু/এমএএস/এমএস