বিয়েতে অস্বীকৃতি, প্রেমিকের সামনেই বিষপানে মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক রাজশাহী
প্রকাশিত: ০২:২২ পিএম, ০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯
প্রতীকী ছবি

বিয়েতে রাজি না হওয়ায় প্রেমিকের সামনেই বিষপানে মারা গেছেন জরিনা খাতুন (১৮) নামে রাজশাহীর মোহনপুরের এক কলেজছাত্রী। বুধবার সন্ধ্যায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে মারা যান তিনি।

এর আগে বুধবার দুপুরে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে বিষপান করেন ওই তরুণী। পরে তাকে দ্রুত হাসপাতলে নেন প্রেমিকের স্বজনরা।

জরিনা খাতুন মোহনপুর উপজেলার হরিহরপুর গ্রামের বদর উদ্দিনের মেয়ে। পবার নওহাটা মহিলা ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি।

অপরদিকে প্রেমিক মাহাবুর রহমান (২২) একই উপজেলার মাটিকাটা গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে। তিনি রাজশাহী নিউ ডিগ্রি কলেজের দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী। জরিনা খাতুন সম্পর্কে তার ফুপাতো বোন।

নিহতের স্বজনরা জানান, পারিবারিক সম্পর্ক থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। বুধবার কলেজে যাবার নাম করে জরিনা মাহাবুরের বাড়িতে গিয়ে ওঠে এবং তাকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। কিন্তু মাহাবুর রাজি না হওয়ায় ওই বাড়ির সবার সামনেই বিষপান করেন জরিনা। অবস্থা বেগতিক দেখে মাবুরের স্বজনরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়।

মোহনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহম্মেদ জানান, এ ঘটনায় নগরীর রাজপাড়া থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। তবে, নিহতের স্বজনরা থানায় কোনো অভিযোগ দেননি। অপমৃত্যু মামলার বিষয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে পুলিশ।

ফেরদৌস সিদ্দিকী/এমএমজেড/পিআর