ডেঙ্গু কেড়ে নিল পরিবারের একমাত্র সন্তানের প্রাণ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ
প্রকাশিত: ০১:৪৫ পিএম, ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মানিকগঞ্জের শিবালয়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রুবায়া আক্তার নামে এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। সে উপজেলার কয়রা গ্রামের আব্দুর রশিদের মেয়ে এবং স্থানীয় রুপসা ওয়াহেদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেণির ছাত্রী।

মানিকগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার দুপুরে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। শনিবার সকাল ১০টার দিকে জানাজা শেষে স্থানীয় কবরস্থানে রুবায়া আক্তারকে দাফন করা হয়।

রুবায়ার মামা ইউনুছ আলী জানান, বৃহস্পতিবার শিবালয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর রুবায়ার ডেঙ্গু শনাক্ত হয়। শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে জেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হয় তাকে। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বিকেল ৩টার দিকে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। দ্রুত রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নেয়া হলে সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার মৃত্যু হয়। রুবায়া পরিবারের একমাত্র সন্তান ছিল। তাকে হারিয়ে মা-বাবাসহ স্বজনরা পাগলপ্রায়।

রুপসা ওয়াহেদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, ডেঙ্গুতে রুবায়ার অকাল মৃত্যুতে স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার স্মরণে নীরবতা পালনসহ সংক্ষিপ্ত শোক সভার আয়োজন করা হয়।

প্রসঙ্গত, মাত্র তিনদিন আগে একই উপজেলায় ২৫ দিনের সন্তান রেখে মারা যান চামেলি আক্তার নামে এক মা। এছাড়া মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকায় নেয়ার পথে এ পর্যন্ত জেলায় আরও সাতজন ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

বি.এম খোরশেদ/আরএআর/জেআইএম