কবিরাজের অপচিকিৎসায় কিশোরীর হাতে পচন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ১১:২৯ এএম, ১২ অক্টোবর ২০১৯

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় গ্রাম্য কবিরাজের অপচিকিৎসায় হাতে পচন ধরেছে এক কিশোরীর। কলমাকান্দা সদর ইউনিয়নের কালিহালা গ্রামের হতদরিদ্র সায়েদ আলীর মেয়ে ইভা আক্তার শাপলার (১৫) হাতে খোস-পাঁচড়া হলে গ্রাম্য কবিরাজ মিজান আহমেদের স্মরণাপন্ন হন।

কবিরাজ মিজান ওই কিশোরীর চিকিৎসা শুরু করলে হাতে পচন ধরে। এক মাস চিকিৎসার পর অবস্থার অবনতি হলে ইভাকে কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা করানো হয়।

ইভার খালা রিনা বেগম বলেন, একমাস আগে হাতে বিছা (এক ধরনের বিষাক্ত পোকা) লেগেছে। এরপর থেকে চিকিৎসা করছে ওই কবিরাজ। ইভার হাত পচে গেছে। হাতে পোকা হয়ে গেছে। প্রচণ্ড যন্ত্রণায় শুক্রবার বিকেলে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। কিন্তু চিকিৎসকরা তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যেতে বলেছেন। কিন্তু টাকা না থাকায় যেতে পারিনি।

কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আরিফ জানান, উন্নত চিকিৎসার জন্য ইভাকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যেতে হবে। পরিবারের লোকজন টাকা জোগাড় করে শনিবার ময়মনসিংহ মেডিকেলে যাবে।

কবিরাজ মিজানের বাড়ি একই উপজেলার পুলিয়াপাড়া গ্রামে। তার মুঠোফোন বন্ধ থাকায় তার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আল মামুন বলেন, আমরা ইভার চিকিৎসা করবো। তাকে আবার হাসপাতালে নিয়ে আসতে বলেছি।

কামাল হোসাইন/আরএআর/এমএস