আদালতে ৩ ঘণ্টায় মামলার রায়!

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ফেনী
প্রকাশিত: ১১:১৭ এএম, ২৯ অক্টোবর ২০১৯
ফাইল ছবি

ফেনীর আদালতে মাত্র ৩ ঘণ্টায় একটি মোবাইল চুরির মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল সোমবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইনের আদালত সংক্ষিপ্ত বিচারে তিনজনের কারাদণ্ড দিয়েছেন। আদালতে লোকজনের ভিড়ে মোবাইল চুরি করে আসছিলেন সাজাপ্রাপ্ত ওই তিন আসামি।

মামলার এজহার ও আদালত সূত্র জানায়, সিনিয়র জুড়িশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট ২য় আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে আসেন ফেনী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের আমতলী এলাকার বাসিন্দা মো. জসিম উদ্দিন। দীর্ঘক্ষণ আদালতের বারান্দায় দাঁড়ানো অবস্থায় বিচারপ্রার্থীদের ভিড়ের মধ্যে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তিনি হঠাৎ দেখেন তার পকেটে থাকা মোবাইল সেটটি নেই।

তাৎক্ষণিক তিনি তার পাশে অবস্থানরত মো. গোলাপ হোসেনকে সন্দেহ করে তার পকেট তল্লাশি করে উপস্থিত লোকজনের সামনে তাকে আটক করেন। পরে কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক গোলাম জিলানীর হাতে তাকে সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক মো. জসিম উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আটক গোলাম হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। একই সঙ্গে আদালতপাড়ায় মোবাইল ছিনতাইয়ের ঘটনায় তার সঙ্গে শাহ জাহান ও মাসুদ রানা নামে আরও দুইজন সহযোগী ছিলো বলে জানান।

পরে আদালতের নির্দেশে পুলিশ ওই দুই আসামিকেও আটক করে। বিচারক মো. জাকির হোসাইন তাৎক্ষণিক ওই মামলায় ছয়জনের সাক্ষ্যগ্রহন শেষে ৩ ঘণ্টার মধ্যে আদালতের যাবতীয় বিধি অনুসরণ করে সংক্ষিপ্ত বিচার আইনে ৩ আসামিকে সাজা দেন।

রায়ে নারায়ণগঞ্জের সিদ্দিরগঞ্জ উপজেলার সানারপাড় গ্রামের বাদশা মিয়ার ছেলে মো. গোলাপ হোসেনকে (৩২) এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড, ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার চন্দ্রপুর গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে শাহ জাহান (৩৮) ও কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার গোত্রশাম গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে মো. মাসুদ রানাকে (১৯) ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

রাশেদুল হাসান/আরএআর/পিআর