নারীঘটিত বিষয়ে কলেজছাত্রকে মারধর, ছাত্রলীগের ১৩ নেতাকর্মী আটক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৭:৪৪ পিএম, ১৫ জানুয়ারি ২০২০

সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার বড়দল আফতাবউদ্দীন কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্রের ওপর হামলার ঘটনায় ১৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে কলেজের শিক্ষকদের কক্ষ থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন বড়দল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নাহিদ রানা বাবু, তার সহযোগী ছাত্রলীগ নেতা ইয়াছিন আলী, জাহিদুল গাজী ও মুরাদ সানাসহ ১৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী।

বড়দল আফতাবউদ্দীন কলেজিয়েট স্কুলের এক প্রভাষক বলেন, বুধবার বেলা ১১টার দিকে কলেজ মাঠে কলেজের ছাত্র লিখন ইসলামকে নারীঘটিত বিষয় নিয়ে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি নাহিদ রানা বাবুর নেতৃত্বে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বেধড়ক মারধর করেন। এ সময় মাঠের পাশে কাজে নিয়োজিত থাকা শ্রমিকরা ঘটনাটি দেখার পর উত্তেজিত হয়ে পড়েন। এ সময় নিজেদের বাঁচাতে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা কলেজের শিক্ষকদের রুমে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন।

তিনি বলেন, পরে ঘটনাটি কলেজের অধ্যক্ষ ড. মুহাম্মদ সিহাব উদ্দীন আশাশুনি থানা পুলিশকে জানান। এরপর আশাশুনি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের আটক করে নিয়ে যায়। আটক এসব ছাত্রলীগ নেতাকর্মী বিভিন্ন মানুষের পকেটে গাঁজা দিয়ে চাঁদাবাজি করে বেড়ান। কিছুদিন আগে কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক প্রবীর বৈরাগীকেও মারপিট করেছিলেন এসব ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

আফতাবউদ্দীন কলেজিয়েট স্কুলের অধ্যক্ষ ড. মুহাম্মদ সিহাব উদ্দীন বলেন, এ ঘটনায় কলেজের পক্ষ থেকে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে।

আশাশুনি থানা পুলিশের ওসি আব্দুস সালাম বলেন, কলেজছাত্রকে মারপিটের ঘটনায় ১৩ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়েছে। এখনও লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আকরামুল ইসলাম/এএম/পিআর