২০০ টাকা ফিতে রোগী দেখেন অষ্টম শ্রেণি পাস এমবিবিএস

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৫:২৭ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২০
আটক আব্দুল মালেক

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গা বাজার থেকে অষ্টম শ্রেণি পাস এক ভুয়া এমবিবিএস চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। তার নাম আব্দুল মালেক।

বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তাকে আটক করা হয়। আটক আব্দুল মালেক (৫৫) শহরের মধুমল্লারডাঙ্গী এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, এক বছর ধরে ঝাউডাঙ্গা বাজারের ঝাউডাঙ্গা ফার্মেসিতে চেম্বার খুলে রোগী দেখছেন আব্দুল মালেক। চিকিৎসা ফি নেন ২০০ টাকা। কিছুদিন আগে গ্রামে মাইকিং করে চক্ষুবিশেষজ্ঞ এমবিবিএস পরিচয় দিয়ে রোগীদের চেম্বারে ডাকেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে চেম্বারে গিয়ে তার কাগজপত্র দেখতে চান।

এ সময় আব্দুল মালেক চিকিৎসার কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেছেন বলে স্বীকার করেন তিনি। পাশাপাশি ভারতে আয়ুর্বেদিক কোর্স করেছেন বলে জানালেও সার্টিফিকেট দেখাতে পারেননি। এ সময় গ্রামবাসীর রোষানলে পড়েন আব্দুল মালেক। পরে সদর থানা পুলিশের এসআই মানিক তাকে থানায় নিয়ে যান।

সদর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মানিক বলেন, আব্দুল মালেক ভারতে লেখাপড়া করেছেন বলে জানিয়েছেন। আয়ুর্বেদিক চিকিৎসার ভারতীয় একটি সার্টিফিকেট রয়েছে তার। সেটিও সঠিক কিনা যাচাই করা হয়নি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আব্দুল মালেককে আটক করা হয়েছে। তার কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে দেখছি আমরা।

আকরামুল ইসলাম/এএম/পিআর