কুমিল্লায় মেয়েদের পেছনে ফেলেছে ছেলেরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ১২:২৬ পিএম, ৩১ মে ২০২০
ফাইল ছবি

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে গড় পাসের হার ৮৫.২২ শতাংশ। এ বছর ১ লাখ ৫৯ হাজার ৭০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৫৬০ জন। গত বছরের তুলনায় কমেছে পাসের হার, কিন্তু জিপিএ-৫ এর সংখ্যা বেড়েছে। ৩টি বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১০ হাজার ২৪৫ জন।

বোর্ড সূত্রে জানা যায়, এ বছর বিজ্ঞান বিভাগে পাসের হার ৯৬ দশমিক ৭৬ শতাংশ। এ বিভাগে ৪৪ হাজার ৭১২ জন পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ৪৩ হাজার ২৬৪ জন। মানবিক বিভাগে পাসের হার ৭৬.৩৩ শতাংশ। এ বিভাগে ৫৫ হাজার ৪২৪ জন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাস করেছে ৪২ হাজার ৩০৪ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে পাসের হার ৮৪ দশমিক ৮৩ শতাংশ। এ বিভাগে ৫৮ হাজার ৯৩৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৪৯ হাজার ৯৯২ জন।

এ বোর্ডে এবার ফলাফলে ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে। ছেলেদের পাসের হার ৮৬.৩১ শতাংশ এবং মেয়েদের পাসের হার ৮৪ দশমিক ৪১ শতাংশ।

এ বছর ১ হাজার ৭৩২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৬২টি প্রতিষ্ঠান শতভাগ পাসের কৃতিত্ব অর্জন করেছে এবং কোনো প্রতিষ্ঠানে পাসের হার শূন্য নেই। গত বছর শতভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছিল ১৩২টি। গত বছর এ বোর্ডে পাসের হার ছিল ৮৭.১৬ শতাংশ এবং জিপিএ পেয়েছিল ৮ হাজার ৭৬৪ জন। গত বছরের তুলনায় এবার পাসের হার কমেছে ১.৯৪ শতাংশ এবং জিপিএ-৫ বেড়েছে ১ হাজার ৪৮১ জন।

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ড. মো. আসাদুজ্জামান জানান, গণিতে গত বছর পাসের হার ছিল ৯৩.৭৭ শতাংশ এবং এবার পাস করেছে ৮৮.৯৩ শতাংশ। অন্য বিষয়ে ধারাবাহিকতা থাকলেও গণিতে তুলনামূলক পাসের হার কিছুটা কমেছে। পাসের হার ১.৯৪ শতাংশ কমে যাওয়ার পেছনে এটাই বড় কারণ। তবে এটাকে খারাপ বলা যাবে না।

কামাল উদ্দিন/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]