মৌলভীবাজারে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, অস্ত্রের মহড়া

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মৌলভীবাজার
প্রকাশিত: ১২:১৯ এএম, ০৫ জুলাই ২০২০

মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলায় ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল আহত হয়েছেন।

শনিবার (৪ জুলাই) বিকেল ৫টার দিকে সদ্য বহিষ্কৃত জুড়ি কলেজ সভাপতির গ্রুপ এবং বর্তমান উপজেলা কমিটির নেতাকর্মীদের মধ্যে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয় ছাত্রলীগ। এতে জুড়ী বাজারে থমথম অবস্থা বিরাজ করে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় বর্তমানে সেখানে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

জানা গেছে, ছাত্রলীগ থেকে সদ্য বহিষ্কৃত জুড়ি কলেজ শাখার সাবেক সভাপতি এ আর সাজেদের কর্মী নিজু আহমদকে মারধর করে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেলের কর্মীরা। এরপর সাজেদ তার কর্মীদের নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেলকে মারধর করেন। সন্ধ্যার পর সাহাব উদ্দিন সাবেল ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূইয়ার নেতৃত্বে দেশীয় অস্ত্রসহ বিক্ষোভ মিছিল করে নেতাকর্মীরা।

জুড়ী কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কৃত এ আর সাজেদ বলেন, তারা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

জুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূইয়া জানান, আমি ও আমার কমিটির সভাপতি মোটরসাইকেলে ফিরছিলাম। এ সময় আমাদের ওপর হামলা করে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কৃত এ আর সাজেদ ও তার কর্মীরা। আমরা অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিইনি এবং কী কারণে এই হামলা তাও জানি না।

মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো রাসেল জানান, বহিষ্কৃত এবং পদবঞ্চিতরা মিলে সভাপতির ওপর হামলা করেছে।

জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জাগো নিউজকে জানান, ছাত্রলীগ সভাপতির ওপর হামলা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে আছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

রিপন দে/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]