এসএমএস করে ডেকে নিয়ে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৬:১৯ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে ডেকে নিয়ে এক স্কুলছাত্রীকে (১৩) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে দেলদুয়ার থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়ার পর অভিযুক্ত মো. মাসুদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বর্তমানে ওই স্কুলছাত্রী টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

গ্রেফতার মো. মাসুদ উপজেলার এলাসিন ইউনিয়নের সিংহরাগী গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

নির্যাতনের শিকার ওই স্কুলছাত্রী জানায়, মাসুদ তাকে প্রাইভেটে পড়তে যাওয়া আসার সময় বিরক্ত করতো। গত ১৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় মোবাইলে এসএমএস করে তাকে বাড়ির সামনে আসতে বলে মাসুদ। বাড়ির সামনে গেলে মাসুদসহ মুখোশপরা আরও দুই যুবক তাকে নৌকায় তুলে নিয়ে সিংহরাগী বিলে নিয়ে ধর্ষণ করে। চিৎকার করলে তার মুখ চেপে ধরা হয়। ঘটনাটি কাউকে বললে প্রাণে মারার হুমকিও দেয় তারা। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি বাবা-মাকে জানালে সঙ্গে সঙ্গে দেলদুয়ার থানায় জানান তারা। এরপর তাকে প্রথমে দেলদুয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলেও বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সে এখন চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্কুলছাত্রী বলে, মাসুদের ভয়ে এতোদিন আমি কাউকে কিছু বলিনি। আমার যারা ক্ষতি করছে আমি তাদের ফাঁসি চাই।

নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীর মা বলেন, আমার মেয়ের যারা সর্বনাশ করছে আমি তাদের কঠিন বিচার চাই।

jagonews24

স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, আমি কীভাবে সমাজে মুখ দেখাবো। সমাজের মানুষই আমাকে কী বলবে। আমার এতো বড় ক্ষতি কীভাবে করলো। আমার একমাত্র মেয়ের যারা ক্ষতি করেছে আমি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, ওই স্কুলছাত্রীকে বুধবার দুপুরে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) টিম গঠন করে তার শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে।

দেলদুয়ার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুল হক ভূইয়া বলেন, এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাসুদকে বুধবার বিকেলে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য দুইজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

আরিফ উর রহমান টগর/আরএআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]