চাঁদাবাজি মামলায় শ্রমিক লীগ সভাপতিসহ পাঁচজন কারাগারে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল
প্রকাশিত: ০৯:৩৬ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় চাঁদাবাজি মামলায় উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বাচ্চু সিকদারসহ পাঁচজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

তারা হলেন- উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ও পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবু বকরের ছেলে বাচ্চু সিকদার (৫৫), একই ওয়ার্ডের মৃত হুরমুজ আলীর ছেলে শামসুল হক (৫৪), তার ভাই রউফ সিকদার (৫০), আবুল হোসেনের ছেলে আবুল কাশেম (৪৫) এবং মৃত ইসমাইল সিকদারের ছেলে জেলহক সিকদার (৪৪)।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে টাঙ্গাইলের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি (সখীপুর) আদালতে সাত আসামির মধ্যে ছয়জন আত্মসমর্পণ করেন। শুনানি শেষে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নওরিন আক্তার জামিন না মঞ্জুর করে তাদের মধ্যে পাঁচজনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী আনোয়ার হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মৃত পাঞ্জু সিকদারের ছেলে সামাদ সিকদার ২০১৯ সালে নিজের কেনা জমিতে সখীপুর পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের পাঁচতালা মার্কেটের দোতলায় নির্মাণকাজ শুরু করেন। ওই সময় উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বাচ্চু সিকদার ও তাদের লোকজন সেটি দখল করে চাঁদা দাবি করেন। পরে সামাদ সিকদার বাদী হয়ে বাচ্চু সিকদারসহ সাতজনকে আসামি করে টাঙ্গাইলের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন।

আরিফ উর রহমান টগর/এএম/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]