বিপুল পরিমাণ অস্ত্র-গুলিসহ মেম্বার গ্রেফতার, স্বজনরা বলছেন ‘নাটক’

উপজেলা প্রতিনিধি উপজেলা প্রতিনিধি বেনাপোল (যশোর)
প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ৩০ অক্টোবর ২০২০
গ্রেফতার ইউপি সদস্য হাবিব বিশ্বাস

যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার পুটখালী সীমান্ত এলাকা থেকে নয়টি পিস্তল, ৪৯ রাউন্ড গুলি ও ১৯টি ম্যাগাজিনসহ হাবিব বিশ্বাস (৩৮) নামে এক ইউপি সদস্যকে (মেম্বার) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬-এর সদস্যরা।

শুক্রবার দুপুরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার হাবিব বিশ্বাস পুটখালী গ্রামের কোরবান বিশ্বাসের ছেলে ও পুটখালী ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য। তবে স্বজনরা বলছেন, বাড়িতে কোনো অস্ত্র পাওয়া যায়নি। এটি সাজানো ‘নাটক’।

যশোর র‌্যাব-৬-এর কোম্পানি কমান্ডার এম সরোয়ার হুসাইন বলেন, গোপন সংবাদের মাধ্যমে আমরা জানতে পারি অবৈধভাবে ভারত সীমান্ত অতিক্রম করে একটি অস্ত্র চোরাকারবারি দল ইউপি সদস্য হাবিব বিশ্বাসের বাড়িতে বিপুল পরিমাণ অস্ত্রের চালান মজুত করেছে দেশের অভ্যন্তরে পাচারের জন্য।

সংবাদের ভিত্তিতে ইউপি সদস্য হাবিব বিশ্বাসের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ঘরের মধ্যে থেকে নয়টি পিস্তল, ৪৯ রাউন্ড গুলি ও ১৯টি ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে অস্ত্র ব্যবসায় জড়িত। অস্ত্র, গুলি ও ম্যাগাজিনসহ হাবিব বিশ্বাসকে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

তবে হাবিব মেম্বারের ভাই মাহবুব ও ভাবি রুপালী বেগম জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত আনুমানিক ১.৪০ মিনিটে বাড়ির প্রধান গেটের তালা ভেঙে একদল লোক র‌্যাব পরিচয়ে বাড়িতে প্রবেশ করে। বাড়িতে ঢোকার আগে তারা বাড়ির সিসি ক্যামেরার তার কেটে ফেলে। এরপর মেম্বারের ঘরের তালা ভেঙে তল্লাশি করে চলে যাওয়ার সময় র‌্যাব সদস্যরা সাদা কাগজ দিয়ে বলেন, আপনারা স্বাক্ষর করেন ঘরে কোনো মালামাল পাওয়া যায়নি।

কিছুক্ষণ পর আবার তারা বাড়িতে প্রবেশ করে একটি বালতি উঠানে রেখে বলে অস্ত্র পাওয়া গেছে। সেখানে নাকি ওই সব পিস্তল, ম্যাগাজিন ও গুলি ছিল। অথচ আমাদের বাড়িতে ব্যবহারের জন্য দা ছাড়া অন্য কোনো জিনিস ছিল না। পরে মেম্বারকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় র‌্যাব।

রুপালী বেগম বলেন, আমাদের গ্রামের কিছু লোক শত্রুতা করে এমন কাজ করেছে। শার্শার কন্যাদাহ গ্রামের ভুট্টো নামে একজন লোক আমাদের প্রতিবেশী মিজানের বাড়িতে থাকেন। তিনি ও তার সহযোগীরা শত্রুতা করে এমন কাজ করেছেন। অস্ত্র রেখে হয়তো আমাদের ফাঁসিয়ে দিয়েছেন। বাড়ির সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখলে সত্যটা জানা যাবে।

জামাল হোসেন/এএম/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]