এক ‘মা’ জন্ম দিলেন, ঘর দিলেন আরেক ‘মা’

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০৭:২০ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০২১

এক ‘মা’ জন্ম দিয়েছেন আর ঘর দিয়েছেন আরেক ‘মা’- এভাবে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেছেন চুয়াডাঙ্গায় জীবননগর উপজেলার বাঁকা ইউনিয়নের শুকুর আলীর ছেলে ভূমিহীন মো. ইব্রাহিম আলী।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. আলী আজগার টগরের হাত থেকে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরের চাবি পেয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এমন অনুভূতি ব্যক্ত করেন তিনি।

jagonews24

তিনি বলেন, ‘নিজের কোনো জমি নেই আমার। সরকারি জায়গায় ঝুপড়ি ঘরে বাস করতাম। পরের জমিতে কামলা খেটে যা রোজগার হতো তা দিয়ে কোনো মতে সংসার চলতো। জমানো কোনো টাকা-পয়সা নেই। নিজের একটা বাড়ি হবে তা স্বপ্নেও ভাবিনি। কিন্তু আজ নিজের নামে একটি বাড়ির দলিল পেয়ে নিজেকে ভাগ্যবান মনে হচ্ছে। আমি এখন কন্দবর্পুর গ্রাম ছেড়ে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘোষনগর গ্রামে নতুন ঠিকানায় নিজ বাড়িতে থাকবো।’

জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ১৮টি ভূমিহীন পরিবারকে ঘরের চাবি তুলে দেন অতিথিরা।

jagonews24

অনুষ্ঠানে জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো. হাফিজুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি গোলাম মোর্তূজা, সাধারণ সম্পাদক উপাধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকি, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার, সাংবাদিক মুন্সী মাহবুবর রহমান বাবু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মো. নজরুল ইসলাম সরকার বলেন, আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় শনিবার চুয়াডাঙ্গায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে ১৩৪ পরিবারের মধ্যে ২ শতক করে জমি এবং বাড়ির কাগজপত্র হস্তান্তর করা হয়।

jagonews24

এর মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলায় ৩৪টি, আলমডাঙ্গায় ৫০টি, দামুড়হুদায় ৩২টি ও জীবননগর উপজেলায় ১৮টি পরিবার প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়েছেন।

তিনি আরো জানান, যার জমি আছে ঘর নেই এমন পরিবারের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে চুয়াডাঙ্গায় ৯ হাজার ৯৫৪টি বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়া হবে।

সালাউদ্দীন কাজল/এমএইচআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]