ছেড়া কম্বল মুড়িয়ে নবজাতককে রেখে পালালেন মা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ২৪ জানুয়ারি ২০২১

চারদিন বয়সী নবজাতককে হাসপাতাল চত্বরে রেখে পালিয়ে গেছেন হীরা খাতুন নামে এক নারী। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে ছেড়া কম্বলে ওই নবজাতককে মুড়িয়ে রেখে পালিয়ে যান।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত ওয়ার্ডমাস্টার আব্দুল হালিম জানান, একদিন বয়সী বাচ্চাটিকে নিয়ে গত বুধবার (২০ জানুয়ারি) হাসপাতালে ভর্তি হন হীরা খাতুন নামে এক নারী। হাসপাতালের নথিতে ওই নারী পিতার নাম আহসান উল্লাহ ও সাতক্ষীরা সদরের হাড়দ্দহ গ্রামের বাসিন্দা উল্লেখ করেন।

তিনি জানান, শনিবার বেলা ১১টার দিকে ওই নারী নবজাতকটি একটি ছেড়া কম্বলের মধ্যে জড়িয়ে হাসপাতালের গ্যারেজের পাশে খোলা স্থানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

আব্দুল হালিম জানান, নবজাতকের কান্নাকাটির শব্দ শুনে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। ভর্তির সময় ওই নারীর দেওয়া ঠিকানা যাচাই করে দেখা যায় সেটি ভুয়া। তার কোনো হদিস মিলছে না। তবে তিনি ইটভাটায় কাজ করেন বলে জানা গেছে।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. সামসুর রহমান জানান, শিশুটির ওজন প্রয়োজনের তুলনায় কম। আমাদের তত্ত্বাবধানে রেখে তার চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। অনেকে নবজাতকটি দত্তক নিতে চাইলেও আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিতে হবে বলে তাদের জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি জানান, সমাজসেবা দফতরকে অবহিত করার পর তারা পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। জনবল সংকটের কারণে শিশুটিকে দেখভাল করতে হিমসিম খেতে হচ্ছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. কুদরত-ই-খোদার সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আকরামুল ইসলাম/আরএইচ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]