কিশোরকে অপহরণের পর হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০৬:৫৭ পিএম, ১০ এপ্রিল ২০২১
ফাইল ছবি

নেত্রকোনার বরাহাট্টায় মো. রনি মিয়া (১৬) নামে এক কিশোরকে অপহরণের পর হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (১০ এপ্রিল) গভীর রাতে উপজেলার দশধার গ্রাম থেকে তুলে নিয়ে পকেট থেকে ৩০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন অপহরণকারীরা। পরে তাকে মারধর করে সদর উপজেলার বাড়ইডহর সেতুর ওপর ফেলে যান তারা।

এ ঘটনায় শনিবার (১০ এপ্রিল) ওই কিশোরের বাবা আবদুল কাদির নেত্রকোনা মডেল থানায় মামলা করেন। মামলায় নেত্রকোনা সদর উপজেলার বড়গাঁওয়া গ্রামের হৃদয় মিয়া (২৫), চরপাড়া গ্রামের লাদেন মিয়া (২০), বাইশধার গ্রামের মো. মিজান মিয়াসহ (১৮) পাঁচজনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

অভিযোগে সূত্রে জানা গেছে, বারহাট্টার দশধার গ্রামের আবদুল কাদিরের ছেলে মো. রনি মিয়া, সদর উপজেলার বড়গাঁওয়া গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে হৃদয় মিয়া ও বাইশধার গ্রামের মো. আনোয়ার মিয়ার ছেলে মিজান মিয়া সদর উপজেলার ঠাকুরাকোনায় একটি ইট ভাটায় শ্রমিকের কাজ করতেন। রনি মিয়ার সঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে হৃদয় ও মিজানের দ্বন্দ্ব চলছিল। শুক্রবার রাতে হৃদয় ও মিজানসহ পাঁচজন মিলে রনি মিয়াকে অপহরণ করে বারহাট্টার বাইশধার সেতুর কাছে নিয়ে যান। সেখানে তার চোখ-মুখ বেঁধে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতে করে গুরুতর আহত করেন। এসময় তার পকেট থাকা ৩০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেন তারা। পরে গুরুতর অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

নেত্রকোনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এইচ এম কামাল/আরএইচ/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]