বেতনের দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর
প্রকাশিত: ০৮:২৩ পিএম, ১৩ এপ্রিল ২০২১

বকেয়া বেতন ও ভাতার দাবিতে গাজীপুরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেছেন কারখানার শ্রমিকরা। ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সকাল ১০টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন ট্রাউজার ল্যান্ড লিমিটেড পোশাক কারখানার শ্রমিকরা।

পরবর্তীতে পুলিশ ও কারখানার কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে অবরোধ ছেড়ে চলে যান তারা। দুপুর ১ টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক কিছুটা স্বাভাবিক হয়।

কারখানাটির শ্রমিকরা জানান, প্রায় তিন হাজার শ্রমিক কাজ করে। ১৩ এপ্রিল পার হলেও এখনো তিন মাসের বেতন বাকি রয়েছে। মঙ্গলবার তাদের বেতন দেয়ার কথা ছিল। কিন্তু সকাল থেকে বেতন না দেয়ায় মহাসড়কে বিক্ষোভ করেন শ্রমিকরা।

শ্রমিকদের অভিযোগ, তাদের গত ঈদের উৎসব ভাতারও বকেয়া রয়েছে। করোনার ৫ শতাংশ প্রণোদনার টাকাও তাদের দেয়া হয়নি। বকেয়া বেতন ও ভাতা চাইলেই কর্তৃপক্ষ শ্রমিক ছাঁটাই করে দেয়ার হুমকি দিয়ে আসছে।

jagonews24

গাজীপুর মেট্রোপলিটনের টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহ আলম জানান, ওই কারখানার শ্রমিকদের গত তিন মাসের বেতন বকেয়া পড়ে আছে। কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের বেতন পরিশোধে একাধিকবার আশ্বাস দিলেও বেতন পরিশোধ করেনি। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তারা মঙ্গলবার মহাসড়ক অবরোধ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে বেতন পরিশোধের আশ্বাসে মহাসড়ক ছেড়ে যায়।

এদিকে, সকাল ৯টার দিকে মহানগরের টঙ্গী বিসিকে দুমাসের বেতন ভাতার দাবিতে তাস কীট অ্যান্ড ফ্যাশন লিমিটেডের কারখানার মূল ফটকে বিক্ষোভ করেন পোশাক শ্রমিকরা। এতে সকাল ৯টা থেকে শুরু হয়ে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলে তাদের বিক্ষোভ। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পোশাক শ্রমিকদের সরিয় দেয়।

এ বিষয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ জানান, সকাল থেকে টঙ্গীর পৃথক স্থানে পোশাক শ্রমিকরা বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখছে।

মো. আমিনুল ইসলাম/এসজে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]