ভূরুঙ্গামারীতে শিক্ষার্থীকে পেটানো সেই মাদরাসা শিক্ষক গ্রেফতার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ০৩:২৯ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০২১

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে কওমি মাদরাসার সাত বছরের এক শিক্ষার্থীকে বেদম প্রহার করা সেই শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। শিক্ষক আবু সাইদ পাথরডুবি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের হবিবর রহমানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত শিক্ষক আবু সাইদকে বুধবার গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে উপজেলা সদরের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের পিছনের সড়ক থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে পুলিশ বাদী হয়ে ২০১৩ সালে শিশু আইনের ৭০ ধারায় একটি মামলা দায়ের করে।

ভূরুঙ্গামারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন জানান, কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাথরডুবি ঢেবঢেবি বাজার কিসমত-কুলসুম কওমি নূরানি ও হাফেজি মাদরাসার এক শিশু শিক্ষার্থীকে অমানসিক মারধরের অভিযোগ ওঠে। এ বিষয়ে একটি ভিডিও তিনদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশের নজরে আসে। পরে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে।

ওসি আরও জানান, নির্যাতনের শিকার হওয়া শিক্ষার্থীর অভিভাবকদের ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোনো প্রকার অভিযোগ নেই। তবে শিশু আইনে যে কেউ বাদী হতে পারে। ফলে পুলিশ বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

উল্লেখ্য, নির্ধারিত বাড়ির কাজ না লিখে অন্য লেখা লিখে জমা দেয়ার অপরাধে ১৯ এপ্রিল ওই শিক্ষক কর্তৃক মাদরাসার সাত বছরের এক শিক্ষার্থীকে বেদম মারধরের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিও দেখে ওই শিক্ষার্থীর বাবা বিষয়টি জানতে পারেন। ওইদিন বিকেলে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ একটি সালিশি বৈঠকের আয়োজন করে অভিযুক্ত শিক্ষককে বহিষ্কার করেন।

মো. মাসুদ রানা/এসজে/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]